Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

সাকিবের নয়া জীবনের ইনিংস

tচরম গোপনীয়তায় জীবনের ইনিংস শুরু করলেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক ও বিশ্বের এক নম্বর অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। শেষ মুহূর্তে ভেন্যু বদল করে সাকিবের ‘আকদ’ সম্পন্ন হয় দেশের সবচেয়ে পুরনো ও অভিজাত পাঁচতারা হোটেল রূপসী বাংলায়। গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত তার আকদ অনুষ্ঠানের কথা ছিল হোটেল সোনারগাঁওতে। একটি সূত্রে জানা যায়, সাকিব-শিশির বিয়ের দেনমোহর ধার্য হয়েছে ২০ লাখ টাকা। সন্ধ্যা ৭টা ২০ মিনিটে কনে উম্মে আহমেদ শিশির রূপসী বাংলায় প্রবেশ করেন। তখনই নিশ্চিত হওয়া যায় মিডিয়াকে এড়াতেই এমন ব্যবস্থা নেয়া হয়েছিল। শিশিরের সঙ্গে ছিলেন তার বড় বোন শিখা। তবে এ সময় তার পরিবারের অন্য কোন সদস্যকে দেখা যায়নি। এমনকি শিশিরের বড় দুই ভাই পারভেজ ও কাজলকেও না। অন্যদিকে বর সাকিব আল হাসান হোটেল রূপসী বাংলায় ধূমকেতুর মতো প্রবেশ করেন রাত সাড়ে আটটার দিকে। তবে হোটেলে উপস্থিত কোন সাংবাদিকের সঙ্গেই তিনি কথা বলেননি। এমনকি কথা বলারও সুযোগ দেননি। আগে থেকেই অবশ্য সংবাদ মাধ্যমের উপস্থিতির ব্যাপারে অলিখিত বিধিনিষেধ  আরোপ করে রেখেছিলেন তিনি। জানা যায়, মঙ্গলবার সিদ্ধিরগঞ্জের আদিবা টাওয়ারের মামার বাসার ছাদে শিশিরের গায়ে হলুদ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শিশির মা-বাবাসহ পরিবারের সবাই বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনে বসবাস করছে। শিশিরের সৎ মা প্রায় ১৫ বছর আগে ডিভি লটারিতে ভিসা পান। তার সঙ্গে পুরো পরিবার যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমায়। শিশির অবশ্য তার দুই বছর পর পিতার কাছে যুক্তরাষ্ট্রে যান। শিশিরের পিতা সাকিব আল হাসানের শ্বশুর মমতাজ আহমেদ সিদ্ধিরগঞ্জর পাওয়ার হাউজের অগ্রণী ব্যাংক শাখায় চাকরি করতেন। শিশিরের পরিবার বলতে বাবা-মা, চার ভাই ও দুই বোন। তবে শিশিরের আপন মা এখনও বাংলাদেশের সিদ্ধিরগঞ্জেই থাকেন ।
২৩ বছরে শিশির এখন পড়াশোনা করেন মিনেসোটা বিশ্ববিদ্যালয়ে। শিশিরের শৈশব কেটেছে সিদ্ধিরগঞ্জে আর পাওয়ার হাউজের স্কুলেই তিনি পড়ালেখা করতেন।
সাকিবের সঙ্গে শিশিরের পরিচয় হয় যুক্তরাজ্যে। স্নাতক ডিগ্রি শেষ  করে ২০১০ সালে যুক্তরাজ্যে বেড়াতে গিয়ে সাকিব আল হাসানের সঙ্গে তার দেখা কোন অনুষ্ঠানে। প্রথম দেখাতেই পছন্দ। এরপর  থেকেই তাদের মন দেয়া নেয়া। সাকিব বাংলাদেশে চলে এলেও তাদের প্রেম চলে মোবাইল ফোনে। তবে অতি সস্প্রতি সাকিব আল হাসানের সঙ্গে ফেসবুকে কোন একটি মেয়ের বেশ কিছু আপত্তিকর ছবি প্রকাশিত হয়। পরে জানা যায়, সেগুলো কোন ফটো হ্যাকারের তৈরি করা নকল ছবি। এর পরই খুলনা টেস্টের শেষ দিনে সাকিব আল হাসান ইনজুরিতে পড়েন। তিনি বাদ পড়েন ওয়ানডে সিরিজ ও একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচ থেকে। এর পর শেষ ওয়ানডের দিন তার বিয়ের সংবাদটি প্রকাশ পায়। সাকিব এবং শিশিরের পরিবার একসঙ্গে বসে বিবাহের দিন ঠিক করেন। আর সেই দিনটি ছিল গতকাল ইংরেজি পঞ্জিকা বর্ষের ‘ম্যাজিক’ সংখ্যা ১২-১২-১২। কাল কেবল দালিলিক আনুষ্ঠানিকতার কাজই শেষ করা হয়। তবে তা সম্পন্ন করা হয় কঠিন গোপনীয়তা নিয়েই। ব্যাট-বল হাতে আলোচনায় থাকা বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার ক্রিকেটের মাঠেও যেমন থাকেন রহস্য আর বিতর্কের নানা ঘেরাটোপে বিয়ে নিয়েও তিনি ক্রিকেটপ্রেমীদের রাখলেন রহস্যের মধ্যে।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট