Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

সরব আওয়ামী লীগ কার্যালয়


৯ ডিসেম্বর : বিএনপির ডাকা রাজপথ অবরোধ কর্মসূচির প্রতিবাদে মিছিলে মিছিলে মুখরিত ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউ এলাকা। সকাল থেকে রাজধানীর প্রতিটি  ওয়ার্ড, থানা থেকে খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে জড়ো হতে শুরু করে। এ এসময় তারা অবরোধ বিরোধী বিভিন্ন মিছিল স্লোগান দেয়। সকাল থেকে বেলা এগারোটার মধ্যে বঙ্গবন্ধু এলাকায় লোকরণ্য পরিণত হয়। এরপর বিভিন্ন ইউনিট থেকে আগত নেতাকর্মীরা মিছিল বের করে। সকালে কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কেন্দ্রীয় যুবলীগ, যুবলীগ দক্ষিণ, উত্তর, মহানগর আওয়ামী লীগ, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, আওয়ামী লীগ মুক্তিযোদ্ধা লীগ, আওয়ামী ওলামা লীগ, সম্মিলিত আওয়ামী লীগ সমর্থক জোট, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটসহ আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা মিছিল বের করেন।
মিছিলে হই হই রই, বিএনপি জামায়াত-র্শিবির গেলো কই, ধর ধর রাজাকার ধর, ধরে ধরে জবাই কর, মুজিবের বাঙলায় যুদ্ধাপরাধীর ঠাই নাই , যারা যুদ্ধাপরাধীর পক্ষ নিবে তাদেরও বিচার করতে হবেসহ বিভিন্ন স্লোগানে মুখরিত করে তোলেন বঙ্গবন্ধু এভিনিউ।  স্বেচ্ছাসেবক লীগ দক্ষিণের সভাপতি দেবাশীষ বিশ্বাস ও সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান টিটুর নেতৃত্বে মিছিলে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, যুব লীগের দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের নেতৃত্বে একটি বিশাল মিছিল বের করে। মিছিলটি বঙ্গবন্ধু এভিনিউ থেকে গুলিস্তান, জিরো পয়েন্ট থেকে পল্টন, বায়তুল মোকারম দিয়ে দৈনিক বাংলা হয়ে আবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আসে। এরপর আব্দুল হক সবুজের নেতৃত্বে সম্মিলিত  আওযামী লীগ সমর্থক জোট একটি মিছিল বের করে। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের উপদেষ্টা শেখ মোহাম্মদ জাহাঙ্গীরের নেতৃত্বে একটি মিছিল বের হয়ে জাতীয় প্রেসক্লাবের সমানে গিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।
বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলমের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ একটি বিশাল মিছিল নিয়ে রাজধানীর বিভিন্ন স্থান প্রদক্ষিণ করে। পরে বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ কার্যালয়ে এসে মিছিলটি শেষ হয়। এর পর একটি তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনাকে অনাকাঙ্খিত বলে দাবি করছে শীর্ষনেতারা। তবে নাম গোপন রাখার শর্তে এক ছাত্রলীগ নেতা জানিয়েছেন, বর্তমান কমিটিতে ছাত্রশিবির থাকায় এ ধরনের ঘটনা ঘটে চলেছে।
এ বিষয়ে আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি এডভোকেট মোল্লা. মো. আবু কাওছার বলেন, গোটা দেশ যখন ক্রিকেট বিজয়ের উল্লাসে মেতে উছেঠে, সেখানে বিএনপি-জামায়াত ও শিবির সারাদেশে অবরোধ পালন করছে। তিনি বলেন, ১৮ দলীয় জোট নেতারা যে দেশবিরোধী কাজে লিপ্ত রয়েছে এই অবরোধই হচ্ছে তার প্রমাণ।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট