Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

সমাবেশে বাধা দিলে হরতাল: জামায়াত

০৩ ডিসেম্বর: সোমবারের সমাবেশে বাধা দিলে মঙ্গলবার সারা দেশে হরতাল দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জামায়াত। রোববার দলের শীর্ষ পর্যায়ের জরুরি বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। দলের নির্ভরযোগ্য সূত্র এই তথ্য জানায়।
ঢাকা মহানগর জামায়াত ইসলামী সোমবার বিকেল তিনটায় বায়তুল মোকাররম উত্তর গেটে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল করা কথা রয়েছে। দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও নিঃশর্ত মুক্তি, সরকারের বিরুদ্ধে দুঃশাসন ও সীমাহীন দুর্নীতির অভিযোগ এবং জনদুর্ভোগ লাঘবের দাবিতে কেন্দ্র থেকে এ কর্মসূচি দেয়া হয়।
এর মধ্য দিয়ে প্রায় দেড় বছর পর প্রকাশ্য কর্মসূচিতে ফিরছে দলটি। সর্বশেষ গত বছরের ৫ মে বায়তুল মোকাররম মসজিদের উত্তর ফটক থেকে বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচি দেয় জামায়াত। পুলিশ লাঠিপেটা করে সেই কর্মসূচি পণ্ড করে দিয়েছিল।
একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে আটক দলের শীর্ষস্থানীয় নয়জন নেতার মুক্তির দাবিতে ৫ নভেম্বর রাজধানীর মতিঝিল এলাকায় মিছিল বের করে। ওই সময় পুলিশের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়। এরপর একযোগে ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, সিলেটসহ প্রায় ২২টি জেলা শহরে পুলিশের ওপর আক্রমণ চালান দলটির কর্মীরা। এতে পুলিশের অনেক সদস্য আহত হন।
এদিকে রোববার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীর সাংবাদিকদের জানান, পুলিশের অনুমতি না নেয়ায় সোমবার ঢাকাসহ সারাদেশে জামায়াতের সমাবেশ করতে দেয়া হবে না।
এ বিষয়ে জামায়াতের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী আমীর রফিকুল ইসলাম খান এক বিবৃতিতে বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য শুধু সত্যের অপলাপ নয় বরং তার ব্যাক্তিত্ব ও পদমর্যাদার সঙ্গে সংগতিহীন। কর্মসূচি পালনের অনুমতি চেয়ে ২৯ ডিসেম্বর ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার বরাবর আবেদন করা হয়েছে এবং সেটি কমিশনার দফতর সিল, স্বাক্ষর ও তারিখ দিয়ে গ্রহণ করেছেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সব জেনেও গণমাধ্যমের কাছে অস্বীকার করেছেন।

তিনি বলেন, সভা-সমাবেশ, মিছিল-মিটিং করা জনগণের মৌলিক, রাজনৈতিক ও সাংবিধানিক অধিকার। কিন্তু আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর জামায়াতসহ বিরোধীদলকে রাজপথে কোন রাজনৈতিক কর্মসূচী পালন করতে দেয়নি।
হরতালের সিদ্ধান্তের ব্যাপারে জামায়াতের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক অধ্যাপক তাসনীম আলম বলেন, “সমাবেশের ব্যাপারে এখনো পুলিশ প্রশাসন থেকে আমাদের কিছু জানানো হয়নি। কর্মসূচিতে বাধা দিলে আমরা পরবর্তী কর্মসূচি সম্পর্কে জানাবো।
ঢাকা মহানগর জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ বলেন, এখনো পুলিশ কোনো নিষেধাজ্ঞা দেয়নি। আমরা আশা করছি প্রশাসন আমাদের কর্মসূচি পালনে সহায়তা দেবে। সে হিসেবেই সমাবেশের সব ধরণের প্রস্তুতি আমরা নিয়েছি।
রোববার রাত সাড়ে ১২টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সোমবার সমাবেশ করার বিষয়ে পুলিশ প্রশাসন থেকে কোনো লিখিত অনুমতি পায়নি জামায়াত।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট