Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

বিজয়ের মাসেই যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের রায় কার্যকর করতে বক্তাদের আহ্বান

 

স্টাফ রিপোর্টার, ২ ডিসেম্বর : বিজয়ের মাসেই যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের রায় কার্যকর করার জন্য ট্রাইব্যুনালের প্রতি আহবান জানিয়েছে আওয়ামী লীগ নেতারা।
তারা বলেন, ২/১টা হলেও এই ডিসেম্বরেই রায় দিতে হবে। এর জন্য সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নির্মিত বিজয় মঞ্চ থেকে আরেকটি যুদ্ধ ঘোষণা করা হবে।
রোববার বিকেলে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিশেষ বর্ধিত সভায় বক্তারা এ দাবি তুলে ধরেন।
ঢাকা মহানগর আওয়ামী  লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ আজিজের সভাপতিত্বে কেন্দ্রীয় আওয়ামী  লীগের সদস্য ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নাসিম, স্বরাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু, আইনপ্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাসিম ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়াসহ  মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।
মোঃ নাসিম বলেন, এই সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অনেক বিজয়ের সাক্ষী। পূর্বের মতো এই উদ্যানের বিজয় মঞ্চ থেকে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের রায় কার্যকরের মাধ্যমে আমরা আরেকটি বিজয় আনব।
এই সরকারের আমলে আমরা কি পেলাম আর কি পেলামনা এর হিসাব নিকাশ পরে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন বিএনপি-জামায়াত পরাজিত শক্তির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে আরেকটি বিজয় ছিনিয়ে আনতে হবে।
তিনি আরও বলেন, শেখ হাসিনাকে সাহস দিতে হবে। তিনি না থাকলে আমরাও থাকবনা। আর তাই আগামী নির্বাচনে শেখ হাসিনাকে আবারও নির্বাচিত করতেই হবে।
বিএনপির অবরোধ কর্মসূচির সমালোচনা করে  এই আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, পাকিস্তান সরকার এই মাসে অবরোধ করেছিলেন। কোন মুক্তিযুদ্ধে বিশ্বাসী লোক এই মাসে অবরোধ দিতে পারেনা।
খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ করে এই নেতা বলেন, দেশের মানুষ যখন বিজয়ের আনন্দ করবে তখন এই অবরোধ কর্মসূচির মাধ্যমে বিরোধী দলীয় নেত্রী দেশকে একটি সংঘাতময় পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে চাচ্ছে ।

মুক্তিযুদ্ধে বিশ্বাসী ও মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী হিসেবে তিনি খালেদা জিয়াকে অবরোধ কর্মসূচি প্রত্যাহারের আহ্বান জানান।
সভায় আইন প্রতিমন্ত্রী অ্যাড. কামরুল ইসলাম হুশিয়ারী দিয়ে বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারে বিএনপি যতই ষড়যন্ত্র করুক তাদের এই বিচার করে দেশে সকল বিভক্তি দুর করা হবে।
যতদিন যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শেষ না হবে ততদিন এই বিজয় মঞ্চ থেকে তিনি  তাদের  প্রতিরোধের ঘোষণা দেন।
বিরোধী দলের কর্মসূচির কঠোর সমালোচনা করে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শামসুল হক  টুকু বলেন, এটা স্বাধীনতা বিরোধীদের মাস নয়। এই মাসে যারা যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচাতে রাজনৈতিক কর্মসূচি দিচ্ছে তাদেরও বিচার করা হবে।
বিজয়ের মাসে বিএনপি কর্মসূচি দিয়ে যুদ্ধপরাধীদের পক্ষে অবস্থান নিয়েছে উল্লেখ করে তাদের বিরুদ্ধে জনমত তৈরী করা হবে বলেও জানান স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।
আগামী কাল সারা শহরে বিজয় র‌্যালির মাধ্যমে জামায়াত শিবিরের রাজনীতি নিষিদ্ধ করার দাবি জানানো হবে বলে জানান ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া।
এর মাধ্যমে জামায়াত শিবিরকে দেশ থেকে বিতাড়িত করা হবে বলেও হুশিয়ারি দেন তিনি।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট