Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

আইয়ুব বাচ্চু শঙ্কামুক্ত

 ব্যান্ড তারকা তথা বাংলার গিটার লিজেন্ড আইয়ুব বাচ্চু এখন অনেকটাই শঙ্কামুক্ত। তবে পুরো শঙ্কা কাটতে সময় নিতে হবে আরও এক মাস। আজ সকালে এমনটাই জানালেন আইয়ুব বাচ্চুর ব্যান্ড এলআরবি’র শব্দ প্রকৌশলী-ব্যবস্থাপক শামীম।
মঙ্গলবার রাতে হঠাৎ করে অসুস্থ বোধ করায় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় আইয়ুব বাচ্চুকে। বর্তমানে তিনি হাসপাতালটির করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) কার্ডিওলজিস্ট আবদুল্লাহ-আল জামিলের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ প্রসঙ্গে আবদুল্লাহ আল জামিল জানান, ফুসফুসে পানি জমার কারণে বাচ্চু ভাইয়ের শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে বেশ কষ্ট হচ্ছিল। গতরাতে চিকিৎসা দেয়ার পর সকাল থেকে তার অবস্থার বেশ উন্নতি ঘটেছে। ডা. জামিল আরও বলেন, আপাতত শ্বাসকষ্টজনিত সংকট কাটলেও এখনও তিনি পুরোপুরি সুস্থ নন। আমাদের হিসাব মতে উনাকে আরও এক মাস টানা বিশ্রামে থাকতে হবে। বিশেষ করে দেশ-বিদেশের স্টেজ শো থেকে বিরত থাকতে হবে তাকে। হাসপাতাল সূত্রে আরও জানা যায়, আইয়ুব বাচ্চু এখন বেশ স্বাভাবিক থাকলেও অন্তত আরও দুইদিন তাকে হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। এদিকে আইয়ুব বাচ্চুর ব্যান্ড এলআরবি’র ব্যবস্থাপক-শব্দ প্রকৌশলী শামীম জানান, আল্লাহপাক না করুন, আতঙ্কিত হওয়ার মতো কিছুই ঘটেনি। বাচ্চু ভাই এখন একদম স্বাভাবিক আছেন। চিকিৎসকের পরামর্শে বাচ্চু ভাইকে এক মাস বিশ্রামে থাকতে বলা হয়েছে। আর তাই আগামী এক মাসের সব কনসার্ট বাতিল করা হয়েছে। বাচ্চু ভাই আমাকে বলেছেন, কনসার্ট বাতিলের বিষয়টি যেন সবাইকে জানিয়ে দেয়া হয়। আকস্মিকভাবে পূর্ব নির্ধারিত কনসার্টগুলো বাতিলের জন্য বস (আইয়ুব বাচ্চু) আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশও করেছেন।
এদিকে আইয়ুব বাচ্চুর অসুস্থ হওয়ার খবরটি আজ ভোর থেকে বিদ্যুৎগতিতে ছড়িয়েছে সংগীতাঙ্গন হয়ে মিডিয়ায় সংশ্লিষ্টদের কাছে। আইয়ুব বাচ্চুর অগুনিত ভক্ত-শিষ্য-শুভাকাক্সক্ষীরা নিজ নিজ ফেসবুক স্ট্যাটাসে রোগমুক্তির জন্য দোয়া চেয়েছেন। মুঠোফোনেও আইয়ুব বাচ্চুর অসুস্থতা নিয়ে সকাল থেকে আতঙ্কগ্রস্ত ছিল সংগীতাঙ্গন। কারণ, আইয়ুব বাচ্চু একটি হাসপাতালের ‘সিসিইউ’তে আছেন। অথচ এ সম্পর্কিত কোন নিশ্চিত তথ্য-উপাত্ত পাওয়া যাচ্ছিল না আইয়ুব বাচ্চু কিংবা তার ব্যান্ড সদস্যদের কাছ থেকে। তথ্য-উপাত্ত দেয়া তো দূরের কথা, এলআরবি সংশ্লিষ্ট দু’একজন রীতিমতো এটা নিয়ে অভিনয়ও করেছেন এই বলে, ‘কি বলেন!’, ‘জানি নাতো!’, ‘কাল রাতেও তো বাচ্চু ভাইকে বেশ সুস্থ দেখলাম’, ‘আচ্ছা আমি এখনই খবর নিচ্ছি!’ ইত্যাদি ইত্যাদি।  যার ফলে সকাল থেকে এই নিয়ে জনমনে অনেক বিভ্রান্তি আর উৎকণ্ঠা ছড়িয়েছে মুঠোফোন-ফেসবুক স্ট্যাটাস হয়ে আইয়ুব বাচ্চু প্রিয় অসংখ্য মানুষের মনে।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট