Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

‘খুনি রোবট’ নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ

রোবটের মাধ্যমে হত্যাযজ্ঞ বন্ধ করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে ‘খুনি রোবট’ নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছে মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)। এ ধরনের সশস্ত্র রোবটগুলো স্বয়ংক্রিয়ভাবে নির্ধারিত লক্ষ্যে গুলি চালিয়ে হত্যাযজ্ঞ চালিয়ে যেতে পারে।

নিউ ইয়র্কভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা-এইচআরডব্লিউ’র সমরাস্ত্র বিভাগের পরিচালক স্টিফেন গুজ এক টেলিভিশন সাক্ষাতকারে বলেন, রোবট নিয়ন্ত্রিত অস্ত্রে মানুষের কোন ভূমিকা থাকে না। এ কারণে, সশস্ত্র রোবটগুলো তার টার্গেট সম্পর্কে নিজ থেকেই সিদ্ধান্ত নেয় এবং গুলি চালায়।”

এ ধরনের হত্যাকাণ্ডে প্রযুক্তির বিকাশ ও উন্নয়নের জন্য তিনি মার্কিন সেনা বাহিনীর তীব্র সমালোচনা করেন।

ভবিষ্যত যুদ্ধে ব্যবহারের জন্য মার্কিন গোয়েন্দা দপ্তর-পেন্টাগন বহু আগেই এ জাতীয় গবেষণা  শুরু করেছে। তারা রোবট সেনা তৈরি ও মানুষের জন্য হুমকি এমন স্থানে তার ব্যবহারের ওপর গুরুত্ব দিয়ে এসব গবেষণা এগিয়ে নিয়েছে।

টিভি সাক্ষাতকারে স্টিফেন গুজ বলেন, ‘খুনি রোবট’ সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয় অস্ত্রের সংক্ষিপ্ত নাম। এগুলো এমন জিনিস যা, চালকবিহীন বিমান বা ড্রোনের উন্নত সংস্করণ। তিনি আশংকা ব্যক্ত করেন, “এভাবে চলতে থাকলে ভবিষ্যতে এগুলো বন্ধ করা কঠিন হয়ে পড়বে।”

এ ধরনের স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র যুদ্ধে ব্যবহার শুরু হওয়ার আগেই  আন্তর্জাতিকভাবে এর ওপর নিষেধাজ্ঞার দাবি জানান এইচআরডব্লিউ’র এ বিশেষজ্ঞ।

গুজ বলেন, “এ খাতে যত অর্থ ব্যয় হবে, তত সময় ব্যয় হবে, ঠিক ততই ভবিষ্যত যুদ্ধে জড়াবার দিকে বিশ্ব এগিয়ে যাবে, বিভিন্ন সেনাবাহিনীর মধ্যে এর ব্যবহার বেড়ে যাবে। এখনই এটা নিষিদ্ধের উপযুক্ত সময়।”

এ ধরনের সশস্ত্র রোবটগুলো সম্পূর্ণ আবেগ অনুভূতিহীন হওয়ায় অবাধে হত্যা ও ধ্বংসযজ্ঞ চালাতে পারে। ফলে মানবতার জন্য তা চরম হুমকিস্বরূপ।# রেডিও তেহরান

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট