Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

জাতীয় পার্টি মহাজোটে থাকবে না

মহাজোটের অবস্থা ভাল নয়। আগামী নির্বাচনে মহাজোট ভাল করতে পারবে না। এ কারণে জাতীয় পার্টি নির্বাচনে মহাজোটের হয়ে অংশ নেবে না। এককভাবে নির্বাচন করবে। জাতীয় পার্টি এখন আগের চেয়ে অনেক ভাল অবস্থানে আছে। গতকাল বিকালে সিলেট সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এ কথা বলেন। তিনি বলেন, জাতীয় পার্টি মহাজোটে থাকবে না। এটা সত্য কথা। সময় হলেই জাতীয় পার্টি মহাজোট থেকে বেরিয়ে আসবে। আর এখন আগের মতো অবস্থা নেই যে, এরশাদকে বাদ দিয়ে কিছু হবে। দেশে নির্বাচন হতে হলে তৃতীয় শক্তি এরশাদকে রেখেই নির্বাচন করতে হবে। এরশাদকে জেলের ভয় দেখিয়ে কোন লাভ নেই। রংপুর ও ঢাকার নির্বাচনে জাতীয় পার্টি এককভাবে নির্বাচনে অংশ নেবে বলে জানান তিনি। আর এ কারণেই সিলেটে মাজার জিয়ারতে এসেছেন। তিনি বলেন, এ দু’টি স্থানের নির্বাচনে হয়তো জাতীয় পার্টি হবে প্রধান বিরোধী দল। আর এরই মাধ্যমে প্রমাণ হবে জাতীয় পার্টির শক্তি। আমরা চাই এ দু’টি নির্বাচনে জয় দিয়ে এককভাবে যাত্রা শুরু করবে জাতীয় পার্টি। এরশাদ ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে দুপুরে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান। সেখান থেকে চলে আসেন শাহ্‌জালাল (রহঃ) মাজারে। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর আহমদ, আলহাজ আতিকুর রহমান, মহাসচিব রুহুল আমীন হাওলাদার, কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব সেলিম উদ্দিন, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল্লাহ সিদ্দিকী, সাবেক এমপি মকসুদ ইবনে আজিজ লামা, সিলেট মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি কাজী আশরাফ উদ্দিন সাদ। এরশাদ মাজার জিয়ারত করে বেরিয়ে এসে সাংবাদিকদের কাছে বলেন, ‘ঢাকা ও রংপুর নির্বাচনের প্রস্তুতি হিসেবে সিলেট সফর করছি। কোন শুভ কাজের আগে বাবা শাহ্‌জালালের দোয়া নিই। এবারও তাই করলাম। আশা করি এ দু’টি নির্বাচনেই জাতীয় পার্টি এককভাবে নির্বাচন করে জয়লাভ করবে। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি মাজার প্রাঙ্গণে বলেন, মিথ আছে সিলেট-১ আসনে যে পাস করবে সেই দল সরকার গঠন করে। সিলেট-১ আসনে আমি প্রার্থী হবো কিনা সে বিষয়টি নিশ্চিত নয়। তবে, রংপুরের আসনটি আমি আমার স্ত্রী রওশন এরশাদের হাতে ছেড়ে দিয়েছি। সুতরাং সিলেট-১ আসন নিয়ে এখনও আমরা কিছু বলতে পারবো না। মাজার প্রাঙ্গণে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এরশাদ জানান, জাতীয় পার্টি একক ভাবে নির্বাচন করবে- তিন বছর ধরে বলে আসছি। এবারও বলবো, জাতীয় পার্টি এককভাবে নির্বাচন করবে। আর সময় হলেই জাতীয় পার্টি মহাজোট থেকে বেরিয়ে আসবে। এরপর শাহ্‌পরাণ (রহঃ)-এর মাজার জিয়ারত করে এরশাদ বেলা দেড়টায় সিলেট সার্কিট হাউসে পৌঁছান। এ সময় নগরীর সুরমা মার্কেটের সামনে থেকে হাজার হাজার নেতাকর্মী এরশাদকে স্বাগত জানায়। সার্কিট হাউসে এরশাদ সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। কিন্তু সম্মেলনস্থলে নেতাকর্মীদের ভিড় থাকায় এরশাদ বক্তব্য দেয়ার আগে সাংবাদিকরা তার সংবাদ সম্মেলন বয়কট করে চলে আসেন। এ সময় স্থানীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে সাংবাদিকদের বাগ্‌বিতণ্ডা হয়। পরে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আতিকুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল্লাহ সিদ্দিকী, সিলেট মহানগর জাতীয় পার্টির সাবেক সভাপতি কাজী আশরাফ উদ্দিন সাদ সার্কিট হাউসে হলরুম থেকে নেতাকর্মীদের বের করে দেন। এরপর ওই তিন নেতার অনুরোধে সাংবাদিকরা সম্মেলনস্থলে যোগ দেন। এর আগে অবশ্য আতিকুর রহমান আতিক এ ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। সাংবাদিক সম্মেলনে এরশাদ বলেন, সিলেটে আসার আগেই জেলা ও মহানগর জাতীয় পার্টির কমিটি ভেঙে দেয়া হয়েছে। এখন দেখে শুনে ভাল কমিটি করবো – যাতে নির্বাচনে ভাল ফল দিতে পারে। তিনি বলেন, সিলেটের মানুষের কাছে আমি ঋণী। সিলেট আমার দ্বিতীয় আবাসভূমি। সুতরাং দুর্দিনে আমি সিলেটে আসি। বাবার দোয়া নিই। তিনি বলেন, জাতীয় পার্টির অবস্থা এখন বেশ ভাল। শান্তির জন্য পরিবর্তন স্ল্লোগান নিয়ে আগামী নির্বাচন করবো। নির্বাচনে সংশয় প্রসঙ্গে এরশাদ বলেন, আমি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের পক্ষ নয়। তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমাকে জেল খাটিয়েছে। প্রধান বিরোধী দল বিএনপি তত্ত্বাবধায়ক ছাড়া নির্বাচন করবে না। এর জন্য আমাদের আলোচনা করতে হবে। সকলে মিলে সুন্দর একটি ফর্মুলা বের করতে হবে- যে ফর্মুলার মধ্য নিয়ে নির্বাচন হবে। তিনি আমেরিকার প্রসঙ্গ টেনে বলেন, কোন দল নির্বাচনে অংশ না নিলে যে নির্বাচন হবে না- তা নয়। নির্বাচন হতে হবে। দেশে সাংবিধানিক ধারা তৈরির জন্য নির্বাচন প্রয়োজন। আগামীতে একটি নির্বাচন আছে। জাতীয় পার্টি গণতান্ত্রিক দল। জাতীয় পার্টি সব নির্বাচনে অংশ নেবে। যেভাবেই নির্বাচন হোক জাতীয় পার্টি নির্বাচনে অংশ নেবে। জাতীয় পার্টি গণতন্ত্রে বিশ্বাসী এবং জনগণের কারণেই জাতীয় পার্টি নির্বাচনে অংশ নেবে। এরশাদ বলেন, মানুষ পরিবর্তন চাইলেই জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় আসবে। তবে আগামীতে যে দু’টি নির্বাচন আছে সে দু’টি নির্বাচনে জাতীয় পার্টি এককভাবে জয়লাভ করবে।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট