Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

সময়ের সুলতান : গাড়ির চালক আজম খান

 সময়ের খেলা বড় অদ্ভুত। সময় রাজাকে পরিণত করে ভিলেনে। আবার সাধারণকে পরিণত করে সুলতানে। সাবেক রেলমন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের এপিএস ওমর ফারুক তালুকদারের গাড়ির চালক আজম খান এমনই এক সুলতান। এক টিভি সাক্ষাতকারে রেলওয়েগেট কেলেঙ্কারির রহস্যপাস করে এখন তিনি আলোচনার শীর্ষে। ছয় মাস ধরে আত্মগোপনে থাকা এই গাড়ি চালক আমাদের অনেকেরে বিবেকবোধেই নাড়া দিয়েছেন। অন্যায়কে মেনে নেয়ার চলমান সংস্কৃতিতে এক উজ্জল ব্যতিক্রম আজম। কেন তিনি ধরিয়ে দিলেন ৭৪ লাখ টাকা? চাইলে যে টাকার মালিক হতে পারতেন তিনি নিজে। এমন অফারই দেয়া হয়েছিল তাকে। তারপরও আজম আমাদের শুনিয়েছেন, চিরন্তন এক বিবেকবোধের কথা। তিনি জানিয়েছেন, বস্তাভর্তি টাকা নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল মন্ত্রীর বাসায়। শুধু ওই দিনই নয়, এর আগেও তিনি টাকা নিয়ে যান মন্ত্রীর বাসায়। এভাবে ঘুষের টাকা নিয়ে যাওয়ার অপরাধবোধ থেকেই ওইদিন টাকাসহ মন্ত্রীর এপিএস ও রেলের জিএমকে বিজিবির কাছে ধরিয়ে দেন। চাঁদপুরের মতলব উপজেলার উপাদী উত্তর ইউনিয়নের উত্তর নওগাঁও গ্রামের দুদ মিয়া খান ও মাজেদা বেগম দম্পতির পুত্র আজম খান। ছয় মাস ধরে নিঁখোজ সন্তানকে টিভিতে দেখে শুকরিয়া আদায় করেছেন তারা। বলেছেন, আজম খুব সৎ ছিল। আর এ জন্যই সে বেঁচে আছে। আজমের ভাইয়েরা জানান, তারা এখন আজমকে দেখতে বাড়িতে প্রতীক্ষা করছেন। এতদিন তারা আজমের কোন খোঁজ জানতেন না। গত ৯ই এপ্রিল সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের এপিএসের গাড়িতে বিপুল অর্থ পাওয়ার খবর প্রকাশের পর তা নিয়ে দেশজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। এরপর ১৬ই এপ্রিল কেলেঙ্কারির দায় নিজের কাঁদে নিয়ে পদত্যাগ করেন সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত। পরে অবশ্য তাকে দপ্তরবিহীন মন্ত্রী হিসেবে বহাল রাখা হয়। পরে দুর্নীতি দমন কমিশন অবশ্য মন্ত্রীর এপিএস এবং রেলওয়ের কর্মকর্তার দুর্নীতির খোঁজ পেলেও সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের দুর্নীতির কোন হদিস পায়নি। ঘটনার ছয় মাস ধরে নিরুদ্দেশ আজম খান শুক্রবার বেসরকারি টিভি চ্যানেল আরটিভিকে দেয়া সাক্ষাতকারে বিস্তারিত বর্ননা দেন রেলওয়েগেট কেলেঙ্কারির। বলেছেন, ঘটনা করছে মন্ত্রী, এপিএস। রেলের কিছু দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের নিয়ে এদের কিছু সিন্ডিকেট আছে। কিন্তু এটাকে তারা পলিটিক্যালভাবে ভয় দেখাতে চায় যে সরকার এটার সাথে জড়িত আছে, যেন আমি এটা প্রকাশ না করি। আমি  তো জানি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতিবিরোধী, আমি চাই এদেশে যেন কোন দুর্নীতিবাজ ছাড় না পায়। পলাতক জীবনের অবসান ঘটিয়ে সরকারকে সহযোগিতা করারও আগ্রহের কথাও জানান আজম।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


One Response to সময়ের সুলতান : গাড়ির চালক আজম খান

  1. Ramjan Ali

    October 6, 2012 at 7:41 pm

    Many many thanks . Present times Sultan…Azam khan

    [WORDPRESS HASHCASH] The poster sent us ’0 which is not a hashcash value.