Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

‘ঢাকায় বিশ্বব্যাংকের গুপ্তচর’

 ঢাকায় বিশ্বব্যাংকের গুপ্তচরেরা কাজ করছে। এই গুপ্তচরদের নাম প্রকাশ করা জরুরি বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান। সকালে মিন্টুরোডের সরকারি বাসার সামনে উপস্থিত সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন। বিশ্বব্যাংকের শর্ত মেনে ছুটিতে যাওয়া বিষয়ে ধুম্রজাল থাকলেও এ নিয়ে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেননি সরকারের এই উপদেষ্টা।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, যে ছুটি চাইবে এবং যে ছুটি মঞ্জুর করবে- তাদের মধ্যে এ রকম কিছু হয়নি। তিনি বলেন, এখানে বিশ্ব ব্যাংকের একটি স্পাই নেটওয়ার্ক রয়েছে, যা অত্যন্ত গর্হিত কাজ। এই গুপ্তচরেরা বিশ্বব্যাংকে ভুল তথ্য দিয়েছে। আমার ছুটিতে যাওয়ার বিষয়টি গৌণ। এর চেয়েও বড় বিষয় হলো দেশের স্বার্থবিরোধী গুপ্তচরবৃত্তির সঙ্গে যারা জড়িত তাদের নাম প্রকাশ করা। কারা এই গুপ্তচার বৃত্তির সঙ্গে জড়িত এমন প্রশ্নে কারও নাম উল্লেখ করেননি তিনি।
যারা গুপ্তচর বৃত্তি করছে তারা বেনামে ইমেইল পাঠাচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতও এ বিষয়ে অবহিত।
ড. মসিউর বলেন, বিশ্বব্যাংক ঋণ দিলেও বর্তমান সরকারের আমলে পদ্মা সেতুর নির্মাণ সম্ভব হবে না।
পদ্মা সেতুর ঋণচুক্তি পুনর্বিবেচনা শর্ত হিসেবে উপদেষ্টা মসিউর রহমানকে সরিয়ে দেয়ার কথা থাকায় বেশ কিছুদিন থেকে তার ছুটিতে যাওয়ার বিষয় আলোচনা হচ্ছিল। সোমবার মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে তিনি উপস্থিত না থাকায় তার ছুটিতে যাওয়ার গুঞ্জন উঠে। গতকাল বিকালে সরকারের একাধিক সূত্র অর্থ উপদেষ্টার ছুটিতে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে। তবে গোপনীয়তার কারণে বিষয়টি প্রকাশ করা হচ্ছে না বলে সূত্র দাবি করে। উপদেষ্টা ছুটিতে গেছেন এই বার্তা নিয়েই প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে দুতিয়ালি করতে ওয়াশিংটনে গেছেন বলে কোন কোন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে। পদত্যাগ নিয়ে আলোচনা থাকলেও ড. মসিউর রহমান এ নিয়ে সরাসরি কোন জবাব দেননি। সর্বশেষ আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকেও অর্থ উপদেষ্টাকে সরিয়ে দেয়ার দাবি উঠে।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট