Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

তারকারা বিব্রত

 কতিপয় অতি উৎসাহী এবং চলচ্চিত্র সম্পর্কে অনভিজ্ঞ চাটুকদারদের কারণে নানা রকম বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে হচ্ছে দেশীয় চলচ্চিত্রের নামীদামি তারকাদের। এসব অতি উৎসাহীরা ভাসমান খবরের পিছনে ছুটে সেটাকে রংচং মাখিয়ে প্রচার করে তারকাদের শুধু বিব্রতকর পরিস্থিতিতেই নয়, নানান রকম প্রশ্নের সম্মুখীনও করে ফেলছেন। এতে করে প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়ছে বিনোদন সাংবাদিকতাও। সমপ্রতি কয়েকটি পত্রিকায় ছাপা হয়েছে প্রিয়দর্শিনী চিত্রনায়িকা মৌসুমীর দীর্ঘ ২০ বছরের স্বপ্ন পূরণ হতে চলেছে। কি সেই স্বপ্ন? অতি উৎসাহীরা জানিয়েছে দীর্ঘ অভিনয় জীবনে মৌসুমীর স্বপ্ন ছিল তিনি একটি মুক্তিযুদ্ধের ছবিতে অভিনয় করবেন এবং ‘সোহাগপুর’ নামে একটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার মাধ্যমে মৌসুমীর সেই স্বপ্ন পূরণ হওয়ার পথে। এ ধরনের অসত্য সংবাদে প্রচণ্ড বিব্রতকর পরিস্থতিতে পড়েন মৌসুমী। কারণ তার এই স্বপ্ন ৫ বছর আগেই পূরণ হয়ে গেছে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ছবি চাষী নজরুল ইসলাম পরিচালিত ‘ধ্রুবতারা’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে। প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক রাবেয়া খাতুনের মুক্তিযুদ্ধের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত এই ছবিতে মৌসুমীর সহশিল্পী ছিলেন ফেরদৌস। মৌসুমী এবং মুক্তিযুদ্ধের ছবি নিয়ে রচিত এই ধরনের ভুল তথ্যের সংবাদে ক্ষুব্ধ হয়েছেন ‘ধ্রুবতারা’ ছবির পরিচালক চাষী নজরুল ইসলামও। এর আগে অতি উৎসাহীরা কমপ্লিট নায়িকা পূর্ণিমাকে নিয়ে প্রচার করেছে সরকারি অনুদানের ছবিতে অভিনয় করার এক গোপন স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে গাজী রাকায়েত পরিচালিত ‘মৃত্তিকা মায়া’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে। অথচ এই ছবিতে পূর্ণিমা অভিনয় করছেন না। করছেন লাক্স চ্যানেল আই সুপারস্টার অপর্ণা। যে ছবিতে পূর্ণিমা চুক্তিবদ্ধই হননি সেই ছবিকে তার গোপন স্বপ্ন বানিয়েছে একদল। আরেকদল যখন জানতে পেরেছে পূর্ণিমা এই ছবিতে নেই, তখন তাকে ছবি থেকে বাদ দিয়ে ফেলে লিখেছে ‘পূর্ণিমা আউট অপর্ণা ইন’। এ প্রসঙ্গে পূর্ণিমা বলেন, আমি যে ছবিতে ইনই করিনি সেটা থেকে আউট হলাম কিভাবে? তিনি বলেন, যারা না জেনে কিংবা আমাদের সঙ্গে কথা না বলে এ ধরনের অপপ্রচার চালায় তাদের মানসিক দৈন্যতা দেখে আমার করুণা হয়। যার জন্য এসব বিষয়ে কোন প্রতিবাদ করারও ইচ্ছে হয় না। এদিক দিয়ে আর একটু এগিয়ে মৌসুমী বললেন, না জেনেশুনে কিংবা কোন খোঁজ খবর না রেখে একজন শিল্পীর স্বপ্নের কথা লিখে ফেলা হচ্ছে। আমার কথা যারা লিখছে তাদের সঙ্গে কি শিল্পী তার স্বপ্নের কথা শেয়ার করেছেন? তাকে কি বলেছেন এটা আমার স্বপ্ন? তাছাড়া আমাদের মতো শিল্পীরা কি যাকে তাকে তাদের স্বপ্নের কথা বলে বেড়ায়। মৌসুমী বললেন, হঠাৎ সেদিন শুনলাম আমি নাকি ছবি প্রযোজনা করছি এবং সেটি পরচালনা করছেন নাটকের একজন নারী নির্মাতা। সানির মুখে এমন সংবাদ শুনে আমি তো আকাশ থেকে পড়লাম। আমার এক ঘনিষ্ঠ সাংবাদিককে তৎক্ষণাৎ জানালাম এটা সত্য নয়। আমি কোন ছবি প্রযোজনা করছি না। ওই নারী নির্মাতার একটি নাটকে অভিনয় করার কথা রয়েছে আমার। অথচ এটাকে ছবি এবং আমাকে প্রযোজক বানিয়ে ফেলা হচ্ছে, কতটা বিব্রতকর বিষয় আমাদের জন্য সেটা কি ওই অতি উৎসাহীরা বোঝার চেষ্টা করেন। চিত্রনায়ক শাকিব খানও একাধিক অসত্য সংবাদে দারুণ বিব্রত। কলকাতার কোয়েল মল্লিকের সঙ্গে অভিনয় করছেন, মুম্বইয়ের ছবিতে অভিনয় করছেন এ ধরনের বিভ্রান্তকর সংবাদ ছড়ানোর পর অতি উৎসাহীরা ছড়াচ্ছেন শাকিব খান নাকি চলচ্চিত্র প্রযোজনা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। শুনে হাসলেন শাকিব। বললেন, শুটিং করার সময় পাই না আবার প্রযোজনা। বললেন, নামে প্রযোজক হয়ে লাভ নেই, যদি কখনও ছবি প্রযোজনা করি তাহলে সিরিয়াসলি করবো। কিন্তু এ ধরনের অপপ্রচার আমাদের দারুণ বিব্রত করছে। এটা বন্ধ হওয়া উচিত।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট