Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

সব কলের চার্জ সমান করার নির্দেশ

মোবাইল ফোনের সব কলের চার্জ সমান করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। নির্দিষ্ট প্যাকেজের সকল মিনিট বা পালসের কলচার্জও সমহারে কাটতে হবে। এছাড়া, প্যাকেজে প্রতি মিনিট ও পালসের বিল এবং ভ্যাট আদায় বিষয়ক তথ্য সুস্পষ্টভাবে বিজ্ঞাপনে ও ওয়েবসাইটে উল্লেখ করতে হবে। গতকাল এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা সব মোবাইল ফোন অপারেটরের প্রতি জারি করেছে বিটিআরসি। নির্দেশনায় উল্লেখ করা হয়েছে, প্রতি পালস ও মিনিট প্রতি সর্বোচ্চ বিল আগে থেকেই বিটিআরসি’র কাছ থেকে অনুমোদন করিয়ে নিতে হবে। তাছাড়া, প্রথম পালসে এক রকম আবার শেষের দিকে ভিন্ন হারে টাকা কাটা যাবে না। আগামী ১৫ই সেপ্টেম্বর থেকে এই নির্দেশনা কার্যকর হবে বলে বিটিআরসি’র পক্ষ থেকে বলা হয়েছে।
অন্য চিঠিতে এখনই সব অপারেটরকে তিন দিনের মধ্যে কল সেটআপ চার্জ আদায় বন্ধ করতে বলা হয়েছে।
ওই নির্দেশ অমান্য করলে কমিশন সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেছে বিটিআরসি। এদিকে আজ বৃহস্পতিবার গ্রামীণফোন, বাংলালিংক, রবি ও সিটিসেল দ্বিতীয় প্রজন্মের (টু-জি) লাইসেন্স নবায়নের দ্বিতীয় কিস্তির টাকা জমা দেবে। টু-জি লাইসেন্স নবায়নে চার অপারেটরের স্পেকট্রাম ফি’র দ্বিতীয় কিস্তিতে ২৩২৫ কোটি ৪১ লাখ টাকা দেয়ার কথা। এর সঙ্গে ১৫ শতাংশ হারে ভ্যাট যোগ হলে আরও ৩৪৮ কোটি ৮১ লাখ টাকা বাড়বে। মূল টাকায় গ্রামীণফোনের অংশ ১৫০ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। বাংলালিংকের ৫৮৫ কোটি ৪৪ লাখ, রবি’র ৫৫৮ কোটি ৫০ লাখ এবং সিটিসেলের আরও ১৩০ কোটি ৫০ লাখ টাকা দেয়ার কথা। এর বাইরে আরও প্রায় ১১০০ কোটি টাকা বকেয়া পাওনা এবং লেট ফি দাবি করেছে বিটিআরসি। আগামী ১৫ই সেপ্টেম্বরের মধ্যে ১০ সেকেন্ড পালস চালু এবং কল সেটআপ চার্জ নেয়া যাবে।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট