Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

৩০ দিনের যুদ্ধে প্রস্তুত ইসরাইল, পাল্টা হুমকি ইরানের

জেরুজালেম, ১৫ আগস্ট: ইরানের সঙ্গে ইসরাইলের সম্ভাব্য যুদ্ধ ৩০ তিন স্থায়ী হতে পারে। এই যুদ্ধে ইরানের ক্ষেপনাস্ত্রের আক্রমনে ৫০০ বা তার কিছু বেশি ইসরাইলি প্রাণ হারাতে পারে।

বুধবার ইসরাইলি পত্রিকা মারিভ ডেইলিকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে এমন্তব্য করেন ইসরাইলের অভ্যন্তরীন নিরাপত্তামন্ত্রী মাতান ভিলনাই।

এদিকে তেল আবিবের এসব হুমকি প্রত্যাখ্যান করে ইরান বলছে, তেহরানের বিরুদ্ধে সামরিক পদক্ষেপের মতো কোনো ভুল করলে সেটা হবে বিশ্বের বুকে ইসরাইল সরকারের শেষ দিন।

হামলা হলে তা পর মূহুর্তেই আশপাশের দেশগুলোতে ছড়িয়ে পড়বে বলেও আভাস দিয়েছে ইরানের সামরিক বিভাগ।

দীর্ঘদিন ইসরাইলের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিষয়ক মন্ত্রী সম্প্রতি চীনে দেশটির রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিযুক্ত হয়েছেন। সেপ্টেম্বর মাসে তিনি রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে চীন যাবেন।

মাতান ভিলনাই বলেন, যুদ্ধ নিয়ে দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই; কারণ যুদ্ধ মোকাবেলার জন্য ইসরাইল আগের যেকোনো সময়ের তুলনায় অনেক বেশি প্রস্তুত।

ইসরাইলের বিভিন্ন গণমাধ্যমের কাছে করা মন্তব্য ভিলনাই আরো বলেন, আগামী নভেম্বরে আমেরিকার আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগেই তারা ইরানের পরমাণু স্থাপনায় হামলা চালাবে।

যদিও মঙ্গলবার আমেরিকার প্রতিরক্ষামন্ত্রী প্যানেট্টা বলেছিলেন, ইসরাইল এখনই ইরানে হামলা চালাবে না।

ইসরাইল কি আচিরেই ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামছে?- এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, “এসব কথা বলে আমি বিতর্ক বাড়াতে চাইনা। আমেরিকা আমাদের বড় রকমের একজন বন্ধু। আশা করছি এধরণের কাজে তারা সব সময় আমাদের পাশে থাকবে।

ইসরাইলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী এহুদ বারাকের করা এক মন্তব্যের সঙ্গে সূর মিলিয়ে ভিলনাই বলেন, যুদ্ধ শুরু হলে হাজার হাজার মিসাইল ইসরাইলের শহরগুলোতে আঘাত হানতে পারে। ইরানের সঙ্গে এই যুদ্ধে ৫০০ এর মত ইসরাইলি হতাহতও হতে পারে। কিন্তু এর প্রতিশোধ হবে অত্যন্ত কঠিন।

তিনি আরো মন্তব্য করেন, ইরানের মিত্র লেবাননের হিজবুল্লাহ এবং গাজার ফিলিস্তিনি যুদ্ধারা হামলায় অংশ নিলেও যুদ্ধ ৩০ কিংবা তার চেয়ে কিছু দিন বেশি সময় স্থায়ী হবে।

তবে এই হামলায় ইসরাইলের অর্থনীতি কিংবা তেল আবিবের বাণিজ্যিক কার‌্যক্রমের কোনো ক্ষয়ক্ষতির কথা উল্লেখ করেন নি ভিলনাই।

এর আগে ২০০৮ ও ২০০৯ সালে গাজার সঙ্গে তিন সপ্তাহের যুদ্ধে এবং ২০০৬ সালের হিজবুল্লার সঙ্গে ৩৪ দিনের যুদ্ধে হামলার শিকার হয়নি তেল আবিব। কিন্তু ১৯৯১ সালে ইরাকের সঙ্গে যুদ্ধ চলাকালে রকেট হামলার শিকার হয়েছিল শহরটি।

এদিকে ইরানের সঙ্গে স্নায়ুবিক যুদ্ধের ভীতিতে গত সোমবার ইসরাইলের অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে নেতিবাচক প্রভাব ফেললেও মঙ্গলবার তা স্বাভাবিক হয়ে আসে।
ভিলনাই বলেন, “জাপানের একজন নাগরিক যেমন জানেন তারা যেকোনো সময় একটা ভূমিকম্প দ্বারা আক্রন্ত হতে পারেন তেমনি ইসরাইলের জনগণও মিসাইল দ্বারা আক্রন্ত হওয়ার বিষয়টি মাথায় রেখেছে।”
আগস্টের শেষ দিকে ভিলনাই তার মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব ছাড়বেন। ইসরাইলে প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু তার পরিবর্তে আবরাহাম ডিকটারকে তার স্থলাভিষিক্ত করেছেন। সূত্র: রয়টার্স ও আইআরআইবি।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


One Response to ৩০ দিনের যুদ্ধে প্রস্তুত ইসরাইল, পাল্টা হুমকি ইরানের

  1. oliuddinmoin

    August 16, 2012 at 1:44 am

    Evrey muslim countrey must be fighting agenist isryl!!! Save off iran…