Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকার পেতে সম্পর্ক ভালো করতে হবে: মজিনা

ঢাকা, ২৮ জুলাই: টিকফা চুক্তি নিয়ে আমেরিকার যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের মধ্যে দরকষাকষিকে ‘ব্যাখ্যার অযোগ্য জ্বালাতনকর’ বিষয় আখ্যা করে ঢাকায় নিযুক্ত আমেরিকান রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজিনা শনিবার বললেন, এ চুক্তি বাংলাদেশ সই না করলে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকার মিলবে না।

ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় ব্যবসায়ী নেতারা যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি পণ্যের শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকার পাওয়ার ব্যাপারে রাষ্ট্রদূতের সহযোগিতা চাইলে তিনি জানান, এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয় যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট- কংগ্রেস এবং তাদের রাজি করানোর পথে একটি ‘ভাল পরামর্শ’ হচ্ছে দুই দেশের সম্পর্ক ভাল করা।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে গড়ে বার্ষিক ৬শ’ কোটি ডলারের বাণিজ্য হয় সাম্প্রতিক বছরগুলোতে। দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যে বাংলাদেশের প্রধান রফতানি পণ্য তৈরি পোশাক রফতানিতে দেশটিতে শতকরা ১৫.৩ ভাগ শুল্ক দিতে হয় ব্যবসায়ীদের।

আমেরিকার বিনিয়োগের বিশেষ সুরক্ষাসহ বাণিজ্যে বিশেষ সুবিধা সম্বলিত ‘বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সহযোগিতার রুপরেখা চুক্তি’- টিকফা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘এতে (সই করতে) সমস্যা কি? আমি এতে কোনো সমস্যা দেখি না।’’

‘বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য: এগিয়ে যাবার পথ’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠানে জিএসপি কর্মসূচির আওতায় তৈরি পোশাকসহ বাংলাদেশি পণ্যের শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকার দিতে রাষ্ট্রদূতের সহায়তা চান ঢাকা চেম্বারের সভাপতি আসিফ ইব্রাহিম।

জবাবে রাষ্ট্রদূত এসব কথা বলেন।

যুক্তরাষ্ট্রে শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকারের বিষয়ে দেশটির পার্লামেন্ট- কংগ্রেস সিদ্ধান্ত নেয়, জানিয়ে মজিনা ব্যবসায়ী নেতাদের পরামর্শ দেন এ ব্যাপারে কংগ্রেসের সঙ্গে আলাপ করুন।

তিনি বলেন এ ব্যাপারে একটা ‘ভাল পরামর্শ’ হচ্ছে ‘যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের মধ্যে একটি ভাল সম্পর্ক তৈরি করা।’

তিনি বলেন, ‘‘এ ব্যাপারে রাষ্ট্রদূতকে এসে বলা স্রেফ আপনাদের সময়ের অপচয়, এটা একটা রাজনৈতিক প্রক্রিয়া।’’

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট