Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

দেশে ফিরলেন গুলতেকিন

হুমায়ূন আহমেদের ছোট মেয়ে বিপাশাকে নিয়ে দেশে এসেছেন প্রয়াত লেখকের সাবেক স্ত্রী গুলতেকিন খান।

 

হুমায়ূনের ছোট ভাই আহসান হাবীব বুধবার জানান, মঙ্গলবার রাতে একটি ফ্লাইটে যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফেরেন মা-মেয়ে।

 

গুলতেকিন নুহাশ পল্লীতে যাবেন কিনা জানতে চাইলে আহসান হাবীব বলেন, এ বিষয়ে এখানো কোনো কথা হয়নি।

 

গত ১৯ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের একটি হাসপাতালে মারা যান ক্যান্সারে আক্রান্ত হুমায়ূন আহমেদ।  এরপর ২৩ জুলাই এমিরেটসের ফ্লাইটে হুমায়ূন আহমেদের মরদেহের  সাথে দেশে ফেরার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত যাত্রা বাতিল করেছিলেন গুলতাকিন।

হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরের আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের সহকারী কমিশনার মেরিনা জানান , গুলতেকিন এমিরেটসের ফ্লাইটে আসবেন বলে তথ্য ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনি আসেননি।

 

কিছুটা বিব্রতকর পরিস্থিতি এড়াতেই তিনি দেশে ফিরেননি  তখন এমনটাই জানান গুলতাকিনের ঘনিষ্টজনেরা।

১৯৭৩ সালে হুমায়ূন আহমেদের সঙ্গে গুলতেকিনের বিয়ে হয়। ২০০৩ সালে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ হলে ২০০৫ সালে শীলার বান্ধবী ও অভিনেত্রী শাওনকে বিয়ে করেন হুমায়ূন।

 

গুলতেকিনের ঘনিষ্ঠ সূত্র থেকে জানা যায, তাদের কৈশোর বয়সের দুরন্ত প্রেমের পরিণতি হিসেবে তারা ঘর বেঁধেছিলেন।

 

একে একে জন্ম নিয়েছিল তাদের চার সন্তান। তিল তিল করে গড়া সংসার শাওনের কারণে ভেঙে যায়।

 

সূত্র জানায়, গুলতেকিন হুমায়ূনকে ভীষণ ভালবাসতেন। এতো ভালবাসতেন যা ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়।

 

কিন্তু সেই হুমায়ূনের কাছ থেকে তিনি কষ্ট পাবেন, এটা মেনে নিতে পারেননি।

 

তাদের পরিবারের ঘনিষ্ঠ একজন বলেন, গুলতেকিন ভীষণ আত্মসম্মানী মেয়ে।

 

শাওনকে হুমায়ূন বিয়ে করার কারণে ভীষণ অপমানিত বোধ করেন।

 

এ কারণে হুমায়ূন ধানমন্ডিতে থাকেন বলে গুলতেকিন  বনানীতে ৩ নম্বরের আই ব্লকে ওঠেন।

 

স্কলাস্টিকা স্কুলে শিক্ষকতা করেন গুলতেকিন। সেখান থেকে ছুটি নিয়েই যুক্তরাষ্ট্রে বড় মেয়ে বিপাশার কাছে  গিয়েছিলেন।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট