Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

দেশে এখন আইনের শাসন নেই

দেশে এখন আইনের শাসন নেই। যদি আইনের শাসনই থাকতো, তাহলে মানবাধিকার থাকতো। মানবাধিকার না থাকায় থানার ওসির সঙ্গে কথা বলার প্রয়োজন হচ্ছে। গতকাল বিকালে প্রেস ক্লাবে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মিজানুর রহমান একথা বলেন।
‘সরকার কর্তৃক প্রস্তাবিত বন আইন ১৯২৭ এর অধিকতর   সংশোধনকল্পে আনীত সংশোধনী  ২০১২, বন্য প্রাণী সংরক্ষণ ২০১০ এবং জাতীয় বননীতি ১৯৯৪ আইন’ সম্পর্কিত  আদিবাসী, বনবাসী, বননির্ভর জনগোষ্ঠী ও নাগরিক  সমাজের ব্যানারে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে পার্বত্য চট্টগ্রামের বন ও ভূমি অধিকার সংরক্ষণ আন্দোলন কমিটি। পার্বত্য চট্টগ্রামের বন ও ভূমি অধিকার সংরক্ষণ আন্দোলন কমিটির সভাপতি গৌতম দেওয়ানের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য  হাসানুল হক ইনু, তথ্য কমিশনের কমিশনার ড. সাদেকা হালিম, রিব’র নির্বাহী পরিচালক মেঘনা গুহ ঠাকুরতা, বেলার নির্বাহী পরিচালক আইনজীবী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান, চাকমা সার্কেল চিফ ব্যারিস্টার রাজা দেবাশীষ রায়,  এলআরডি’র নির্বাহী পরিচালক শামসুল হুদা, সংগঠনের মহাসচিব সুদত্ত বিকাশ তঞ্চঙ্গ্যা।
আইন কমিশনের চেয়ারম্যান বলেন, ভূমিদস্যুদের আজ বড়ই ক্ষুধা। তারা বুড়িগঙ্গা নদী খেয়ে ফেলেছে। একদিন হয়তো বঙ্গোপসাগরও খেয়ে ফেলবে। তিনি বলেন, আমলারা আইন  তৈরি করেন। আর সংসদ সদস্যরা সংসদে হ্যাঁ বা না ভোট দিয়ে তা পাস করে দিচ্ছেন। তারা পড়েও দেখেন না। আমলারা আইন তাদের স্বার্থে তৈরি করেন। তাদের স্বার্থের হানি না ঘটে সেদিকে নজর রেখেই আইন প্রণয়ন করেন। এ প্রক্রিয়ার ওপর প্রভাব বিস্তার করতে এখন বিকল্প চিন্তা করতে হবে। জনগণের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। আদিবাসীদের উদ্দেশ্যে ড. মিজানুর রহমান বলেন, পাহাড়ের ভূমি নিয়ে যে আইনের খসড়া হচ্ছে তা আমি এখনও দেখিনি। আপনাদের দাবি যুক্তি ও ন্যায়সঙ্গত হলে সরকারের সঙ্গে আলোচনা করা হবে। কোন কোন আইনে আপনাদের ক্ষতি হবে বা বঞ্চিত হবেন তা উল্লেখ করে দ্রুত মানবাধিকার কমিশনে পাঠান। আইনটি মানবাধিকার পরিপন্থি হলে আমি  স্পিকারকে এবিষয়ে লিখবো। প্রয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর কাছেও পাঠাবো। তিনি আরও বলেন, রাঙ্গামাটিতে এখন অনেক পরিবর্তন হয়েছে। সেখানে এখন দেখা যায়, শুধু বাঙালি আর বাঙালি।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট