Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

শাকিবের নয়া পরিকল্পনা

বরাবরই চালেঞ্জের মধ্যে থাকতে আগ্রহী সময়ের নাম্বার ওয়ান নায়ক শাকিব খান। ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই নানা চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে আসছেন তিনি। এক সময় সবাইকে ছাড়িয়ে নাম্বার ওয়ান নায়কে পরিণত হন। বলা যায়, প্রায় ছয় বছর তার আশপাশে কোন নায়কই ভিড়তে পারেননি। এক সময়ে প্রযোজক-পরিচালক এবং চলচ্চিত্রকে বাঁচানোর চ্যালেঞ্জ নিয়ে বছরে ৩৫০ দিন সকাল-সন্ধ্যা-রাত কাজ করতে থাকেন শাকিব। সে সময় প্রেক্ষাগৃহগুলোতে শুধু তারই ছবি দেখা যায়। কিন্তু সমপ্রতি ভিন্নচিত্র চোখে পড়ে। শাকিব খান অভিনীত ছবিও যেন আগের মতো ব্যবসা করছে না। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সামপ্রতিক আমার অভিনীত ছবিগুলো মুক্তি পেলে দেখা যায়, প্রথম দু’দিনে একটি থেকে অন্যটি রেকর্ড পরিমাণ সেল। ধীরে ধীরে এ সেল কমতে থাকে। দর্শক ছবিগুলো থেকে আস্তে আস্তে মুখ ফিরিয়ে নেয়। এর কারণ কি! আমার অভিনীত ছবি দেখতে প্রথম দু’দিনে দর্শক প্রেক্ষাগৃহে ভিড় করে। কিন্তু ছবির গল্প ও নির্মাণ দুর্বলতার কারণেই পরবর্তীতে দর্শক মুখ ফিরিয়ে নেয়। এর দোষ তো আমার না, দর্শকেরও না। তাই তো আগামীতে নির্মাতাদের খামখেয়ালিপনায় যেন এ ধরনের কোন ঘটনা না ঘটে তার জন্য নয়া পরিকল্পনা করছেন শাকিব খান। আর এ নয়া পরিকল্পনায় প্রথমেই লক্ষ্য করা যায় গল্পের ভিন্নতাকে গুরুত্ব দিয়েছেন তিনি। তথাকথিত মাদ্রাজি ছবির গল্পের অনুকরণে আর কোন নকল গল্প ও সংলাপের ছবিতে অভিনয় করবেন না শাকিব খান। এক্ষেত্রে একবারেই মৌলিক গল্পকে প্রাধান্য দেবেন তিনি। তাই তো ইতিমধ্যেই জাকির হোসেন রাজু, সোহেল আরমান ও রুম্মান রশিদ খানের গল্প এবং সংলাপের তিনটি মৌলিক গল্পের ছবিতে অভিনয় চূড়ান্ত করেছেন শাকিব। এরপরের পরিকল্পনায় রয়েছে অবশ্যই লোকেশন। ইনডোরে এফডিসি অথবা বিভিন্ন শুটিং হাউজকে গণ্ডির মধ্যে রেখে আউটডোর শুটিং করবেন দেশের মনোরম সব লোকেশন। বিশেষ কিছু দৃশ্য উপস্থাপনে অবশ্যই মুম্বই, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ডসহ এশিয়া ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে শুটিং করবেন। ছবির নায়িকা এবং অন্যান্য সহশিল্পীর ব্যাপারেও থাকবে নতুনত্ব এবং দর্শকদের পছন্দকে প্রাধান্য দেয়া। শাকিব খানের বিশেষ দৃষ্টি থাকবে ছবিটি পরিপূর্ণভাবে শেষ হলো কিনা তার দিকে। অর্থাৎ কোন দৃশ্য বাকি রেখে ছবি মুক্তি দিতে দেবেন না নির্মাতাদের। এ ধরনের নতুন একাধিক পরিকল্পনা প্রসঙ্গে শাকিব খান বলেন, এরই মধ্যে একটি ছবি শুরু করেছি। সাফিউদ্দিনের পরিচালনায় ছবিতে আমার নায়িকা হিসেবে আছেন জয়া আহসান। গল্প লিখেছেন রুম্মান। বোঝা যাচ্ছে গতানুগতিক থেকে ব্যতিক্রমী পরিকল্পনা। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত কাহিনীকার জাকির হোসেন রাজু ভাইকে বলেছি ভিন্ন ধরনের গল্প লেখার জন্য। আর লোকেশনের বিষয়ে বলবো, এ মাসে মুম্বই যাচ্ছি। আর ঈদের পরদিন যাচ্ছি মালয়েশিয়ায়। নায়িকার ক্ষেত্রে বলবো, ঈদে তিন্নির সঙ্গে আমার অভিনীত ছবি প্রেক্ষাগৃহে আসবে। সবশেষে জয়ার সঙ্গে জুটি হয়ে অভিনয় শুরু করলাম। মিস কলকাতা সুন্দরীর সঙ্গেও অভিনয় করছি। এছাড়া লাক্সের নতুন একজন নায়িকার সঙ্গে জুটি হবো খুব শিগগিরই। এসবের সঙ্গে কলকাতা ও মুম্বইয়ের দুই শীর্ষ নায়িকার সঙ্গেও অভিনয় করবো খুব শিগগিরই। সব মিলিয়ে চলচ্চিত্র নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন সব নয়া পরিকল্পনা করছি। আশা করছি এর ফলে নতুনত্ব পাবে দর্শক।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট