Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

মুক্তিযোদ্ধার স্বস্তির জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার: খেলা শেষ হওয়ার মিনিট পাঁচেক আগে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড লিমার দূরপাল্লার শট আশ্রয় নেয় ফরাশগঞ্জে জালে। এতেই স্বস্তি ফেরে মুক্তিযোদ্ধার শিবিরে। পরের মিনিটে শাকিলের কল্যাণে এমিলি গোলে ২-০তে লিড পায় তারা। বাকি তিন মিনিটে আরও বেশক’টি গোলের সুযোগ নষ্ট করলে ২-০তে সন্তুষ্ট থাকতে হয় মুক্তিযোদ্ধাকে। অথচ গোল পাওয়ার আগে দুনিয়ার সব কালো মেঘ ভর করেছিল মুক্তির কোচ শফিকুল ইসলাম মানিকের কপালে। ৬০ মিনিটেও গোলের দেখা না পেয়ে কৌশলে পরিবর্তন আনেন মানিক। ডিফেন্ডার রেজা, মিডফিল্ডার টিটু ও মারুফকে পরিবর্তন করে আরিফ, শাকিল ও রাজনকে মাঠে নামান। মূলত আরিফ ও শাকিলের প্রত্যাবর্তনেই খেলার চেহারা পাল্টে যায়। এই দুই জনের কল্যাণেই ফরাশগঞ্জকে ২-০ গোলে হারিয়ে গ্রামীণফোন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে শুভসূচনা করে গতবারের রানার্সআপরা।
ফেডারেশন কাপের সেমিফাইনালের গণ্ডি পেরুতে পারেনি শক্তিশালী মুক্তিযোদ্ধা ক্রীড়া চক্র। কোয়ার্টার ফাইনালে ফরাশগঞ্জের সঙ্গে বহু কষ্টে জিতলেও সেমিফাইনালে টিম বিজেএমসির কাছে ২-০ গোলে হেরে বিদায় নিয়েছিল মানিকের শিষ্যরা। গতকাল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে ফেডারেশন কাপের চাপ নিয়ে খেলা শুরু করে মানিকের শিষ্যরা। আর এ সুযোগে মুক্তিযোদ্ধার উপর নিয়ন্ত্রণ নেয় কামাল বাবুর শিষ্যরা। মুক্তির একের পর এক আক্রমণ নসাৎ করে দিয়ে উল্টো চাপে রাখে তারা। লীগের প্রথম ম্যাচে মান রক্ষার্থে দ্বিতীয়ার্ধে তিনটি পরিবর্তন আনেন মানিক। এতেই সুফল আসে। ম্যাচের ৪১ মিনিটে গোলও আদায় করে তারা। মাঝমাঠে লিমা মিঠুনকে দিলে ফিরতি বলে আবার লিমা দুই ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে সানডের উদ্দেশ্যে বাড়ান। মুক্তিযোদ্ধার নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডের ব্যাকহিল থেকে লিমার জোরালো শট ১-০ গোল করলে ছন্নছাড়া হয় ফরাশগঞ্জ। যার ফলশ্রুতিতে আরও একটি গোল হজম করে তারা। দুই ডিফেন্ডারের ভুলে বল পেয়ে যান শাকিল। শাকিলের পাসে আগুয়ান গোলরক্ষককে কাটিয়ে গোল করেন এমিলি।
এদিকে ফরাশগঞ্জকে হারিয়েও খুশি হতে পারেননি মুক্তিযোদ্ধার কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক। তবে জয় দরকার ছিল দল জিতেছে। কিন্তু দলের পারফরমেন্সে আমি খুশি হতে পারছি না। দল খারাপ খেলার দায় প্রতিপক্ষকের উপর চাপান মানিক। ওরা বেশি মাত্রায় নেগেটিভ ফুটবল খেলেছে। প্রথমার্ধে  স্বাভাবিক খেলাটা উপহার দিতে পারেনি। দ্বিতীয়ার্ধে কৌশলে পরিবর্তন এনে সুবিধা হয়েছে বললেন মানিক। তবে মুক্তিযোদ্ধার কোচ মানিকের অভিযোগ অস্বীকার করেন ফরাশগঞ্জের কোচ কামাল বাবু। তার দাবি ম্যাচে এক পয়েন্টের জন্যই আমি খেলছি। মুক্তিযোদ্ধা ভাল দল, ভাল খেলেই ম্যাচের ফলাফল ওদের পক্ষে নিয়েছে।
মুক্তিযোদ্ধা: মামুন খান (গোলরক্ষক), লিমা, ডেমি, রাফায়েল, মামুনুল ইসলাম, মারুফুল ইসলাম (আরিফ), রেজাউল করিম রেজা (শাকিল), টিটু (রাজন), জাহিদ হোসেন এমিলি, মিঠুন চৌধুরী, সানডে সিজুবা।
ফরাশগঞ্জ: সুলতান (গোলরক্ষক), মামুন মিয়া, রাশেদুল আলম, জহির, শহীদ, সাব্বির, জুয়েল রানা, রিদন (পাশবন), পিটার, মারিও, সিও জুনাপিও।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট