Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

ব্রোকার হাউজেই মৃত্যু

শেয়ার বাজার ধসে পুঁজি খুইয়ে ব্রোকার হাউজেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন মাশিকুর রহমান সুমন। গতকাল তিনি প্রতিদিনের মতো মার্কেটের খোঁজখবর নিতে বরিশালের ব্রোকার হাউস আইসিবিতে গেলে এ ঘটনা ঘটে। শেয়ার মার্কেটে ৩ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছিলেন মাশিকুর রহমান সুমন। তিনি বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্রশাসক ডা. মোখলেছুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র। তার মৃত্যুর সংবাদে বরিশালে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
সুমন ডা. মোখলেছুর রহমান ক্লিনিকের পরিচালক ছিলেন। ৪ ভাই-বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন ছোট। তিনি স্ত্রী, ১ সন্তান রেখে গেছেন। মৃত্যুকালে বয়স ছিল ৪১ বছর। গতকাল সুমন মারা যাওয়ার সময় তার স্ত্রী-পুত্র ছিলেন ঢাকায়। বয়োবৃদ্ধ মাকে দীর্ঘক্ষণ পুত্রের মৃত্যুর সংবাদটি জানানো হয়নি। বৃদ্ধ পিতা পুত্রশোকে যাকে সামনে পেয়েছেন তাকে ধরেই হাউমাউ করে কেঁদেছেন। পিতার আহজারিতে বিহ্বল হয়ে পড়েন উপস্থিত শ’ শ’ মানুষ। ক্লিনিকের চিকিৎসক-কর্মচারীরা তাকে খুব পছন্দ করতেন। তাদের আহাজারিতেও ভারি হয়ে ওঠে পরিবেশ। কান্নায় ভেঙে পড়েন শেয়ার মাকের্টের তার সহকর্মীরাও।
সুমনের ব্যবসায়িক বন্ধু সৈয়দ মাহামুদ হোসেন চৌধুরী জানান, শেয়ার মার্কেটে তিন কোটির বেশি টাকা লগ্নি ছিল সুমনের। এর মধ্যে বেশির ভাগ শেয়ার ছিল বেক্সি টেক্সের। সম্প্রতি বেক্সি টেক্স বেক্সিমকো লিঃ-এর সঙ্গে একীভূত হলে তার শেয়ারের মূল্য এক-তৃতীয়াংশ কমে যায়। এছাড়া অন্যান্য কোম্পানির শেয়ারেও টাকা হারান তিনি। এ কারণে ব্রোকার হাউসে সবসময় মনমরা হয়ে থাকতেন। গতকাল মৃত্যুর আগে সুমন আক্ষেপ করে বলেছিলেন এর চেয়ে চানাচুর বিক্রিও ভাল। এদিকে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতির পুত্রের মৃত্যুতে বরিশালে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। শেবাচিম হাসপাতালে ছুটে যান মেয়র শওকত হোসেন হিরণ। সদর রোডের বাসভবনে ছুটে আসেন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। ছুটে আসেন প্রশাসনের কর্মকর্তারাও। ঢাকা থেকে শোক জানিয়েছেন সাবেক চিফ হুইপ আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ, আওয়ামী লীগ নেতা ও জনতা ব্যাংকের পরিচালক এডভোকেট বলরাম পোদ্দার।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট