Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

নাইন এক্সেল কনে!

এর আগে বিশ্বের সবচেয়ে মোটা মহিলা হবার রেকর্ডটি বাগানোর জন্য বয়ফ্রেন্ড বাবুর্চিকে বিয়ে করবার পরিকল্পনা জানিয়ে বিখ্যাত হয়েছিলেন আমেরিকান নারী সুসানি ইমান। এবার সেই ঘোষণার অংশ হিসেবেই বিশ্বের সবচেয়ে বড় বিয়ের গাউন বানিয়ে রেকর্ড গড়লেন তিনি।

৩৩ বছর বয়স্ক এবং ৩৪২ কেজি ওজনের সুসানের এই বিয়ের গাউনের মাপ দেখেই অনেকে তাকে নাইন এক্সেল কনে বলতে শুরু করেছেন।

অভিনব এই গাউনটি ডিজাইনের অর্ডার পেয়েছেন আমেরিকার বিখ্যাত দর্জি জুডি গলফ। ৩৫ ফুট লম্বা সিফন কাপড় দিয়েই তিনি সুসানির জন্য বানিয়েছেন এই গাউন। বেশি নয় পুরো গাউনটি মেলে ধরতে তিনজন লাগে এবং তা পুরোটা ভাঁজ করতেও নাকি আধাঘণ্টা ব্যায় হয়। ইতিমধ্যে সুসানি এই গাউন পরেও দেখেছেন।
এ প্রসঙ্গে আমেরিকার আরিজোনা রাজ্যের নাগরিক সুসানি বলেন, “আমি অভিভুত, আমার নিজেকে সত্যিই বিয়ের কনের মত লাগছে। আমার বয়ফ্রেন্ড পার্কার আমাকে এখনো এই ড্রেসে দেখেনি। তবে ছবি দেখেই সে নিজের উচ্ছাস প্রকাশ করেছে।”

নিজের বিয়ের প্রসঙ্গে সুসানি বলেন, “পার্কার এখনো আমাকে আনুষ্ঠানিকভাবে আংটি দিয়ে বিয়ের প্রস্তাব দেয়নি। সে হয়তো আমাকে সারপ্রাইজ দিতে চায়। তবে আমরা বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছি এটা ঠিক, এখন শুধু সঠিক সময়ের অপেক্ষা।”

সুসানির বয় ফ্রেন্ডের নাম পার্কার ক্লার্ক। ৩৫ বছর বয়স্ক পার্কার পেশায় একজন বাবুর্চি। ইন্টারনেটে পরিচয়ের মাধ্যমেই সুসানির সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠতা গড়ে উঠে। এরপর সে জানতে পায় সুসানির লক্ষ্য।

বর্তমানে পৃথিবীতে সবচেয়ে মোটা মানুষের ওজন হলো ৭৩০ কেজি। সুসানি সেই রেকর্ডটি ছুঁতেই নাকি দৃঢ় লক্ষ্য নিয়ে খেয়ে চলেছেন। আর পার্কার তাতে বাধা না দিয়ে বরং উৎসাহিতই করছেন।

এরআগে উভয়ে তাদের অদ্ভূত রসায়নের কথা বলতে গিয়ে একে অপরের প্রসংসাই করেন। সুসানি বলেন, “সে মোটা মেয়েদের পছন্দ করে এবং দেখতে ভালোবাসে তার রান্না খেয়ে আমি কতটা খুশি হই।”

পার্কারের রান্নার হাত তার প্রতি আকর্ষণের অন্যতম কারণ উল্লেখ করে সুসানি আরো বলেন, ওর রান্না করা আমার সবচেয়ে প্রিয় ডিশ হলো স্পাগ্যাট্টি বোলোংনেসি।আমি প্রতিদিনই এটি খাই।

অন্যদিক সুসানির প্রশংসা করে পার্কার বলেন, “আমি তাকে সবসময়ই অনুপ্রেরণা জুগিয়ে যাই, কারণ এটি তাকে সুখি করে। এছাড়া আমি মোটা মেয়েদের পছন্দও করি।”

সুসানির স্বাস্থ্য নিয়ে পার্কার বলেন, “আমি এ বিষয়ে বিন্দুমাত্র ভাবি না। বরং আমি সবসময় চাই সুসানি সালাদের মতো স্বাস্থ্যকর খাবার খাক এবং সবসময় ব্যায়াম করুক।”

নাইন এক্সেল কনেকে দেখে ভাববেন না যে তার বরটিও নিশ্চয়ই তেমনই। বরং পার্কার স্বাভাবিক মানুষের মতই স্বাস্থের অধিকারী। তার জামার মাপ সম্পর্কে জানতে চাইলে সুসানি বলেন, “পার্কার ডাবল এক্সেল টি শার্ট পড়তে পছন্দ করে।”

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট