Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিশু ধর্ষণের ‘শাস্তি’ ত্রিশ হাজার টাকা জরিমানা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, ৪ জুন: ধর্ষণের শিকার এক শিশুকে আইনের আশ্রয় নিতে না দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এক ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাইনুদ্দিন চিশতী ‘সালিশ’ করে ধর্ষককে ত্রিশ হাজারটাকা জরিমানার ‘শাস্তি’ দিয়েছেন। সোমবার সকালে বিজয়নগরে উপজেলার পাহাড়পুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানান, রোববার সকালে পাহাড়পুর গ্রামের ১১ বছর বয়সী এক কন্যাশিশু গ্রামের জঙ্গলের কাছে ছাগল চরিয়ে বাড়ি ফেরার পথে এলাকার গেদু মিয়া (৫৭) তাকে জঙ্গলের ভেতর নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় মেয়েটির চিৎকারে কয়েকজন পথচারীরা এগিয়ে আসলে গেদু মিয়া পালিয়ে যায়।

দুপুরের দিকে মেয়েটির অভিভাবক বিজয়নগর থানায় মামলা দায়ের করতে গেলে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাইনুদ্দিন চিশতী বিষয়টি ‘সামাজিক মীমাংসা’র কথা বলে তাদের ফিরিয়ে নেয়।

সোমবার সকালে এ নিয়ে পাহাড়পুর মধ্যপাড়া আব্দুল কাদিরের বাড়িতে ‘সালিশ’ বসান চেয়ারম্যান। এ সময় চেয়ারম্যান মাইনুদ্দিন চিশতী, ওয়ার্ড বিএনপি সভাপতি সাঈদ সর্দার, ছন্দ আলী সর্দার, আজগর মাস্টার ও চান মিয়া উপস্থিত ছিলেন। সালিশে আগামী সোমবারের মধ্যে মেয়েটির পরিবারকে ক্ষতিপূরণ বাবদ ৩০ হাজার টাকা দেয়ার সিদ্ধান্ত দেন তারা।

এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান মাইনুদ্দিন চিশতী বলেন, “সামাজিকভাবে বিষয়টি দেখার জন্য মেয়েটির পরিবারকে থানা থেকে নিয়ে আসা হয়। সালিশ বসে গেদু মিয়াকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।’’

বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রসুল আহম্মেদ নিজামী বলেন, “এমন কোনো অভিযোগ নিয়ে আমার কাছে কেউ আসেনি।”

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট