Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

সাহারা মাতৃভূমির পথচলা শুরু, বাংলাদেশের পরিচালক শেখ ফাহিম

আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশে ভারতের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগ্রুপ সাহারার পথচলা শুরু হয়েছে। গতকাল দুপুরে রূপসী বাংলা হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাহারা মাতৃভূমি উন্নয়ন করপোরেশন নামে একটি কোম্পানির যাত্রা শুরুর ঘোষণা দিয়েছেন সাহারা গ্রুপের কর্ণধার সুব্রত রায় সাহারা। প্রাথমিকভাবে এতে ১০ থেকে ১২ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগের কথা জানিয়েছেন। শেখ ফাহিমকে সাহারা মাতৃভূমির পরিচালক হিসেবে নাম ঘোষণা করেন তিনি। উল্লেখ্য, শেখ ফাহিম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিবারের সদস্য এবং ১৫ই আগস্ট শহীদ শেখ মনির ছোট ছেলে আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের ছেলে ও সংসদ সদস্য শেখ ফজলে নুর তাপসের চাচাতো ভাই। সাহারা ইন্ডিয়া পরিবারের চেয়ারম্যান সুব্রত রায় সাহারা সংবাদ সম্মেলনে তার বক্তব্যে বলেন, সাহারা পরিবার কোম্পানিটি কি করে ’৭৮ সালে মাত্র ৪৩ ডলার দিয়ে শুরু করে এখন ভারতের সেরা ১০টি কোম্পানির মধ্যে স্থান পেয়েছে। দীর্ঘ পরিশ্রম আর সাহারা পরিবারের সদস্যদের কারণে আজ ২৩ বিলিয়ন ডলারের প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে এটি। বাংলাদেশ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমার পূর্ব পুরুষ এই বাংলার। মায়ের বাড়ি বিক্রমপুরে। তার বয়স বর্তমানে ৯৯ বছর। তাকে নিয়ে আসার খুব ইচ্ছে ছিল। কিন্তু আনতে পারিনি। তবে বলে এসেছি, এখানে আসছি। তিনি খুশি হয়েছেন।
আবেগ আপ্লুত হয়ে সুব্রত রায় আরও বলেন, এই মাটির সঙ্গে আমার এবং আমার পরিবারের আবেগের সম্পর্ক। ভারতের বাইরে একমাত্র আমার নাড়ির টান বাংলাদেশের জন্য। আমি পূর্ব পুরুষের ভূমির সঙ্গে সম্পর্ক গড়তে চাই। চাই সমন্বিত উন্নয়নের মাধ্যমে ব্যাপক কর্ম সংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে।
এ দেশের আতিথেয়তায় মুগ্ধ সুব্রত রায় বলেন, এতো আদর, আপ্যায়ন, আন্তরিকতা, সম্মান, শ্রদ্ধা-এতো কিছু আমাকে অবিভূত করেছে। এমন গ্রহণ করার অভ্যাস আমাদের ভারতীয়দের মধ্যে নেই। আমি আমার সঙ্গীদের বলেছি, এসব ভদ্রতা বোধ শিখতে আমাদের বাংলাদেশে আবার আসতে হবে।
নতুন কোম্পানি সাহারা মাতৃভূমি উন্নয়ন করপোরেশন প্রসঙ্গে সুব্রত রায় বলেন, কোম্পানিটি এ দেশের টাউনশিপ, নতুন ঢাকা, স্বাস্থ্য, চিকিৎসা, শিক্ষা, পর্যটন, তথ্য প্রযুক্তি ও অবকাঠামো উন্নয়নে কাজ করবে। এ দেশের খেলাধুলার সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের পৃষ্ঠপোষকতার কাজটিও করার কথা জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার।
সুব্রত রায় আরও বলেন, বাংলাদেশে শিক্ষার দিকে নজর দেয়া উচিত। স্বাস্থ্য সেবার অবস্থাও ভাল না। পর্যটনের দিকে দেশটির অনেক আগেই নজর দেয়ার দরকার ছিল। সুন্দরবনের অদূরে নদীর ওপর একটি পর্যটন শহর গড়ে তুলতে চাই, যা হবে বিশ্বের ৫টি বিখ্যাত পর্যটন কেন্দ্রের একটি। সারা পৃথিবী এখানে হুমড়ি খেয়ে পড়বে। আইটি সিটি করার কথা ভাবছি।
সাহারা মাতৃভূমির পরিচালক হিসেবে নিয়োগ পাওয়া শেখ ফজলে হোসেন ফাহিম প্রসঙ্গে সুব্রত রায় সাহারা বলেন, ফাহিম ভাই শুরু থেকেই আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছেন। তিনি আমাদের নিয়ে এসেছেন। তিনি কোম্পানিটির পরিচালক ও মেন্টর হিসেবে কাজ করবেন। এ সময় তিনি ফাহিমের হাতে তার নতুন পরিচয়পত্র ও বিজনেস কার্ড হস্তান্তর করেন।
সংবাদ সম্মেলনে ধ্রুপদী নৃত্য ও দেশাত্মবোধক গান পরিবেশন করেন শিল্পীরা। এছাড়া জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৩তম জন্মজয়ন্তীতে কবির প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন সাহারা পরিবারের কর্ণধার সুব্রত রায় সাহারা।
গত মঙ্গলবার বাংলাদেশে বিনিয়োগের সম্ভাবনা খতিয়ে দেখতে সাহারা ইন্ডিয়া পরিবারের কর্ণধার সুব্রত রায়ের ২০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ঢাকা পৌঁছায়। আবাসন খাতে বিনিয়োগের জন্য গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বুধবার একটি সমঝোতা স্মারকে সই করেন তিনি। পরদিন বিনিয়োগ বোর্ড কর্মকর্তা ও বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের সঙ্গে বৈঠক করেন। উল্লেখ্য, ১৯৭৮ সালে সাহারা ইন্ডিয়া পরিবার প্রতিষ্ঠা করেন সুব্রত রায় সাহারা। আবাসন প্রকল্প দিয়ে শুরু হলেও এখন অর্থনৈতিক সেবা, জীবন বীমা, মিউচ্যুয়াল ফান্ড, আবাসিক খাতে অর্থ যোগান, অবকাঠামো, সংবাদপত্র ও টেলিভিশন, বিনোদন, চলচ্চিত্র প্রযোজনা, স্বাস্থ্যসেবা, পণ্য উৎপাদন, ক্রীড়া এবং তথ্য প্রযুক্তি খাতে সাহারার ব্যবসা ছড়িয়ে পড়েছে।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট