Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

আয়ারল্যান্ড সফরে যেতে বিসিবি সভাপতির আপত্তি

ঢাকা, ১৬ মে: কদিন আগেই পাকিস্তান সফর নিয়ে নাটকের অন্ত ছিল না। এবার বিসিবি সভাপতি আয়ারল্যান্ড সফর নিয়ে নতুন নাটকে মেতেছেন। বিসিবি সভাপতি জাতীয় ক্রিকেট দলের আয়ারল্যান্ড সফরে চরম আপত্তি তুলেছেন। বোর্ড পরিচালকের সঙ্গে মুখোমুখি অবস্থানে দাঁড়িয়ে আয়ারল্যান্ড সফর না করার পক্ষে রায় দিয়েছেন। এতে প্রচন্ড ক্ষেপেছেন একাধিক বোর্ড পরিচালক।

কিন্তু কেন এই সিদ্ধান্ত নিলেন বিসিবি সভাপতি আহম মোস্তফা কামাল? বিসিবিতে খোঁজ নিয়ে জানা যায় বিসিবি সভাপতি নাকি টি২০ বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডে সিরিজ খেলাটাকে ঝুঁকি হিসাবে দেখছেন। তিনি এই সফরে রাজি নন।

জাতীয় দলের আন্তর্জাতিক সিডিউল ফাঁকা থাকাতেই আয়ারল্যান্ডে যাবার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। বিসিবি নিজে থেকেই আয়ারল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডকে খেলার কথা বলেছে! বিসিবির আহবান সম্মান প্রদর্শন করেই আইরিশ ক্রিকেট বোর্ড বাংলাদেশের সঙ্গে খেলতে রাজি হয়। খেলার সিডিউলও চূড়ান্ত হয়ে গেছে। শেষ মুহূর্তে একি সিদ্ধান্ত দিলেন বিসিবি সভাপতি! সব কিছু হয়ে যাওয়ার পর আয়ারল্যান্ড সফর নিয়ে বিসিবি সভাপতি আপত্তি তুললেও পরিচালকরা এই সফরে যেতে রাজি। টি২০ বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডে গিয়ে খেলার ঝুঁকি বলে মনে করেন না পরিচালকরা।

বিসিবি সভাপতি কি তাহলে হেরে যাবার ভয় পাচ্ছেন! আয়ারল্যান্ডের কন্ডিশনে খেলতে গিয়ে যদি জাতীয় দল হেরে যায় তাহলে ক্রিকেটাররা মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়বেন। এতে করে বিশ্বকাপের আগে মানসিকভাবে নেতিবাচক প্রভাব কাজ করবে ক্রিকেটারদের মধ্যে। তবে সভাপতির এমন যুক্তি গ্রহণ করতে পারেননি বোর্ড পরিচালকরা।

মূল ঘটনা ঘটেছে গত ১৪ মে রাতে হোটেল সোনারগাঁয়ে। গোপন বৈঠকে বিসিবি সভাপতির সঙ্গে এনিয়ে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ও করেন পরিচালকরা। এমন তথ্য বিসিবি সূত্র থেকে জানা গেছে। পরিচালকদের প্রবল বাধার পরও বিসিবি সভাপতি আহম মোস্তফা কামাল নিজের সিদ্ধান্তে অটল থেকে জিম্বাবুয়ে এবং ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোতে টি২০ খেলার অনুমোদন দিয়েছেন।

কিন্তু বিসিবি সভাপতির আহ্বানে আয়ারল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড আইসিসি থেকে অনুমতিও নিয়েছে। ২০ থেকে ২৪ জুলাই তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের সিডিউল নিশ্চিত করে আয়ারল্যান্ড। বাংলাদেশ দলের জন্য সিরিজে একটি প্রস্তুতি ম্যাচও সিডিউলে রেখেছে তারা। সফরে স্কটল্যান্ড এবং নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষেও একটি করে ওয়ানডেও খেলার পরিকল্পনা রয়েছে।

কয়েকজন পরিচালক নাম না প্রকাশের শর্তে , ‘সিডিউল চূড়ান্ত হয়ে যাবার পর সিরিজ বাতিল ঘোষণা করা বিসিবি’র লোকজনের ওপর বাজে ধারণা জন্মাবে আয়ারল্যান্ড ক্রিকেট কর্মকর্তাদের। আগামীতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড থেকে অনুরোধ করা হলে তারা ভালোভাবে গ্রহণ নাও করতে পারে। তবে এ ব্যাপারে সরাসরি প্রতিক্রিয়া জানার জন্য মোস্তফা কামালের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে তাকে পাওয়া যায়নি।

তবে আয়ারল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডকে বিকল্প পরিকল্পনার একটি প্রাথমিক প্রস্তাব দেবার কথাও বিসিবি থেকে জানা গেছে। আয়ারল্যান্ড ক্রিকেট দলকে বাংলাদেশে এসে খেলার জন্য অনুরোধ করতে পারে। আইরিশ ক্রিকেট বোর্ড এতে রাজি হলে ঝামেলা থাকবে না। যদি আয়ারল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড বিকল্প প্রস্তাবে রাজি না হয় তাহলে বিসিবি তাদের না বলে দিতে বাধ্য হবে। কারণ বিসিবি সভাপতির যে অনুমতি নেই।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট