Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

বিএনপি নেতারা কাগুজে বাঘ: মায়া

ঢাকা, ১৬ মে: ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বিএনপি নেতাদের কাগুজে বাঘ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি বলেন, “কাগুজে বাঘ ধরে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।”

বুধবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের দলীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মায়া বলেন, “এক মামলাতেই বিএনপি নেতারা বোরকা পরে কোর্টে গিয়ে হাজির হয়েছেন। আর আমাদের যখন মামলা দিয়েছে তখন আমরা ব্যান্ডেজ লাগিয়ে হাতে স্যালাইন নিয়ে কোর্টে হাজির হয়েছি।”

হরতালে দলীয় নেতাকর্মীদের জনগণের পাশে থাকার নির্দেশ দিয়ে বলেন, “প্রশাসনের পাশাপাশি আমাদের কাজ আমাদের করতে হবে। জনগণের জানমাল রক্ষায় এলাকায় এলাকায় অবস্থান করতে হবে।”

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং আইন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেন, “সরকার হার্ড লাইনে যেতে বাধ্য হচ্ছে।” তিনি আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, ‘‘বুধবার দুপুর থেকে যারা বাসে আগুন দিচ্ছে, জনজীবন অস্থিতিশীল করতে যে তাণ্ডব চালাচ্ছে, সেগুলো দেখে নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করবেন না।’’

‘তাণ্ডবরত’দের উদ্দেশ্যে আইন প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, ‘‘তাদের জন্য ভয়াবহ পরিণতি অপেক্ষা করছে।’’

বিরোধী দলের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে কামরুল বলেন, ‘‘হিসাব- নিকাশ করে কাজ করবেন। সন্ত্রাস করবেন, বুঝে শুনে সন্ত্রাস করবেন।’’

আইন তার নিজের গতিতে চলবে উল্লেখ করে আইন প্রতিমন্ত্রী বলেন, “নেতার জন্য যে আইন কর্মীর জন্যও সেই একই আইন। অপরাধ করলে অবশ্যই বিচারের সম্মুখীন হতে হবে। আইন তার নিজের গতিতে চলছে বলেই বিএনপি নেতারা আত্মসমর্পণ করেছে।’’

বিএনপিসহ ১৮ দলীয় জোট নেতারা আদালতে নির্দেশে আত্মসমর্পণ করলেও জামায়াতের চার নেতা এখনো আত্মসমর্পণ করেননি উল্লেখ করে কামরুল ইসলাম বলেন, ‘‘জামায়াতের চার নেতা আইনের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়েছে।’’

তিনি বলেন, ‘‘বিএনপি এই জামায়াতকে নিয়েই রাজনীতি করছে। জামায়াত বিএনপির ক্যাডাররা দুপুর থেকেই রাজধানীতে তাণ্ডব চালানো শুরু করেছে।’’

চারদলীয় জোট আমলের কথা উল্লেখ করে কামরুল বলেন, “গত সরকারের আমলে আমাদের নেতাকর্মীদের যেভাবে নির্যাতন চালানো হয়েছিল, আমরা তার কোনোটাই করিনি। আমরা কোনো মিথ্যা মামলাও কাউকে দিইনি।’’

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ আজিজের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফয়েজউদ্দীন মিয়া, মুকুল চৌধুরী, বজলুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাজী সেলিম, আওলাদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, রমনা থানা আওয়ামী লীগ সভাপতি এম এ বাশার প্রমুখ।

বর্ধিত সভায় আগামীকাল শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের কর্মসূচি সফল করার আহবান জানানো হয়।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট