Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

জোট নেতারা কারাগারে

ঢাকা, ১৬ মে: বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ জোটের ৩৩ নেতাকে বহনকারী প্রিজন ভ্যান কারাগারের দিকে রওয়ানা করেছে। ধারণা করা হচ্ছে, ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারসহ বিভিন্ন কারাগারে তাদের নিয়ে যাওয়া হবে।

 

এর আগে জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাদের জেলে পাঠানোর নির্দেশ দেন ঢাকার মহানগর হাকিম মো. এরফান উল্লাহ।

 

যাদের জেলে পাঠানো হলো তারা হলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, এমকে আনোয়ার, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল অব. আসম হান্নান শাহ, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকা, যুগ্ম মহাসচিব আমান উল্লাহ আমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নাজিম উদ্দিন আলম, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী অ্যানি এমপি, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম নীরব, স্বেচ্ছাসেবক দল সভাপতি হাবিবুন্নবী খান সোহেল, সাধারণ সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, ছাত্রদল সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, সহসভাপতি হাবিবুর রশীদ হাবিব, কামাল আনোয়ার, সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খান আলীম, সাংগঠনিক সম্পাদক আনিসুর রহমান খোকন, যুবদল মহানগর উত্তরের সাধারণ সম্পাদক এসএম জাহাঙ্গীর, দক্ষিণের সাধারণ সম্পদক রফিকুল আলম মজনু, স্বেচ্ছাসেবক দলের মহানগর উত্তরের আহবায়ক ইয়াছিন আলী, ছাত্রদল ঢাবির আহবায়ক আব্দুল মতিন, যুগ্ম-আহবায়ক ওবায়দুল হক নাসির, মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক আবুল বাশার, আনোয়ার হোসেন, তেজগাঁও থানা বিএনপি নেতা এল রহমান, নবী সোলায়মান, ইউনুস মুধা।

 

১৮ দলীয় জোটের শরীক এলডিপির চেয়ারম্যান কর্নেল অব. অলি আহম্মেদ, বিজেপি চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আন্দালিভ রহমান পার্থ, জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান ও এনপিপি সভাপতি শেখ শওকত হোসেন নিলু।

 

এই মামলার অন্য আসামি বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ও কামরুজ্জামান রতন গ্রেফতার হয়ে জেলে আছেন। যে বাসটি পোড়ানোর মামলায় জোট নেতারা আসামি হয়েছেন সেই বাসের কন্ট্রাক্টর সোহেল মিয়া, হেলপার মো. জসিম, ও মানিক রতন নামের তিন আসামিও জেলে আছেন।

 

অন্যদিকে এই মামলার আসামি জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমির মকবুল আহমাদ, মহানগর সেক্রেটারি নুরুল ইসলাম বুলবুল, ইসলামী ছাত্রশিবিরের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন ও সেক্রেটারি আবদুল জব্বার আদালতে আত্মসমর্পণ করেননি।

 

অন্য আসামি ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন এমপি এর আগেই নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনে আছেন।

 

উল্লেখ্য এজাহারে বিএনপির ৩২ জন, জামায়াতের চার, বিজেপি, এলডিপি, এনপিপি, জাগপার একজন করে এবং গাড়ির হেলপারসহ তিনজনকে আসামি করা হয়। তাদের বিরদ্ধে ধারা ৪ ও ৫ আইন শৃঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধ (দ্রম্নত বিচার) আইন ২০০১ সংশোধনী ২০১০ এ মামলা রুজু করা হয়।

 

গত ২৯ এপ্রিল বিএনপিসহ ১৮ দলীয় জোটের ডাকা হরতালের পর রাত ৯টা ৫ মিনিটে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সামনে হরতালকারীরা একটি গাড়িতে ভাংচুর ও অগ্নি সংযোগ করলে তেজগাঁও থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইসমাইল মজুমদার বাদী হয়ে তেজগাঁও থানায় দ্রুত বিচার আইনের ৪ ও ৫ ধারায় এ মামলা দায়ের করেন।

এ মামলায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ১৮ দলীয় জোটের ৪৪ নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়।

গত ১০ মে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক নুরুল আমিন ঢাকার মূখ্য মহানগর হাকিম আদালতে জোটের ৪৫ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


2 Responses to জোট নেতারা কারাগারে

  1. nazrul islam

    May 17, 2012 at 6:52 am

    ata ki lutar desh.natadar jala nicca bina bicara amadarto pasi diba!!!!!!!!!!!!!
    koba j amra ae bipod thaka mukti pabo.
    police tumra kajta valo koroni

    • nazrul islam

      May 17, 2012 at 6:57 am

      ata ki lutar desh.natadar jala nicca bina bicara amadarto pasi diba!!!!!!!!!!!!!
      koba j amra ae bipod thaka mukti pabo.
      police tumra kajta valo koroni
      r koto hanahani ae desha amadar aktu santi din please.