Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

ঢামেক হাসপাতালে নবজাতক কিনতে এসে আটক দুই নারী

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে গতকাল নবজাতক কিনতে এসে আটক হয়েছে সুলতানা (৪০) ও হাজেরা বেগম (৩২) নামের দুই নারী। আটকের পর তাদের শাহবাগ থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে। নিজের নিঃসন্তান মেয়ের সংসার টেকাতে নবজাতক কিনতে ঢামেকে আসার কথা স্বীকার করেছে সুলতানা। এ ঘটনায় কোন মামলা হয়নি। ঢামেক কর্তৃপক্ষ জানায়, গতকাল সকালে অন্য ভিজিটরদের সঙ্গে হাসপাতালের  ২০৭ নম্বর ওয়ার্ডে আসে সুলতানা ও হাজেরা বেগম। তারা দায়িত্বরত সিস্টার মনোয়ারা বেগম ও বিলকিশ বেগমকে অল্প টাকায় একটি নবজাতক শিশু জোগাড় করে দেয়ার অনুরোধ করে। দুই সিস্টার তাদের বসিয়ে রেখে ঢামেকের অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্পে খবর দেন। পুলিশ এসে এ দুজনকে আটক করে। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমানের নির্দেশে ক্যাম্প পুলিশ তাদের শাহবাগ থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করে। এ দু’জনের গ্রামের বাড়ি নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানার গোলাকান্দাইল গ্রামে। আটক হওয়া সুলতানা বলেন, আমার মেয়ে বিয়ের ১১ বছর ধরে নিঃসন্তান। এখন তার ঘর ভাঙার উপক্রম। বহু জায়গায় ছেলে শিশুর জন্য ঘোরাঘুরি করেছি। এখানে (ঢামেক হাসপাতালে) অল্প টাকায় বাচ্চা পাওয়া যায় শুনে ছুটে এসেছিলাম। ঢামেক হাসপাতালের অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই মোজাম্মেল হক বলেন, মেডিকেল কর্তৃপক্ষের নির্দেশে আমরা তাদের গ্রেপ্তার করে থানায় সোপর্দ করেছি।
শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মু. সিরাজুল ইসলাম বলেন, আটক হওয়া দু’জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদের পর ব্যবস্থা নেয়া হবে। ঢামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, হাসপাতাল বাচ্চা কেনাবেচার জায়গা না। এ জন্য বিভিন্ন এতিমখানা বা সোশ্যাল ওয়ালফেয়ার রয়েছে। তারা এখানে আসল কেন এটা জানতে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছি।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট