Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

পাইবাসকে পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী: কামাল

ঢাকা, ১১ মে: অনেকটাই এখন নিশ্চিত, জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ নিয়োগ নিয়ে বিসিবির কোনো টেনশন নেই। কারণ বিসিবি সভাপতির বক্তব্যে স্পষ্ট হয়ে গেছে বিসিবি রিচার্ড পাইবাসকেই পছন্দ করেছে। এখন পাইবাসের সঙ্গে লেনদেনের বিষয়টি রফা হলেই তাদের জাতীয় ক্রিকেট দলের কোচ হিসেবে পাওয়া যাবে।

পাইবাস যখন বিসিবিতে পা রেখেছেন, তার কিছু আগেই বিসিবি সভাপতি মিরপুরে আসেন। পাইবাস তার বক্তব্য আগেই দিয়ে দিয়েছেন।

বিসিবি সভাপতি বলেন, “জাতীয় দল এখন অভিভাবকহীন। দুয়েকজন বোর্ড পরিচালকের সঙ্গে কথা হয়েছে। দীর্ঘমেয়াদী চুক্তির পরিকল্পনা রয়েছে। প্রথম পর্যায়ে আমরা তিন বছরের চুক্তি করতে চাই। আগামী বিশ্বকাপ পর্যন্ত নতুন কোচ দায়িত্ব পালন করবেন। এর পর চুক্তির মেয়াদ বাড়ানো যেতে পারে।

রিচার্ড পাইবাস পরীক্ষিত একজন কোচ। আমাদের ক্রিকেটের শুভানুধ্যায়ীরা আগেই বলেছিলেন, পাইবাসকে পাওয়ার চেষ্টা করতে। তিনি বড় মাপের একজন কোচ। দিন শেষে পারফরম্যান্সই তার জন্য বড় কথা। সময় ও ইভেন্ট অনুযায়ী নির্দিষ্ট কোনো লক্ষ্য আমাদের নেই। তবে পাইবাস এ ব্যাপারে লক্ষ্য ঠিক করে রেখেছেন। নির্দিষ্ট ইভেন্টে বা নির্দিষ্ট সময়সীমার জন্য তার একটি লক্ষ্য রয়েছে। খেলোয়াড়দের জন্য ব্যক্তিগত লক্ষ্যের পাশাপাশি দলীয় লক্ষ্যও রয়েছেন তার। সব খেলোয়াড় ঢাকায় নেই। তবে জেষ্ঠ কয়েকজন ক্রিকেটারকে আজ রাতে ডাকবো। এ ব্যাপারে তাদের সঙ্গে কথা হবে।”

অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম, সহ-অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মাশরাফি বিন মর্তুজারা থাকতে পারেন বলে আভাস পাওয়া গেছে।

বিসিবি প্রেসিডেন্ট আরো বলেন, “পাইবাসের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। তিনি আমাদের দেশের ক্রিকেট ও অবকাঠামো সম্পর্কে জানতে চান। টিম ম্যানেজমেন্ট, বোর্ড, ক্রিকেটের সুযোগ সুবিধাগুলো সম্পর্কেও ধারণা নিতে চান তিনি।”

পাইবাসের সঙ্গে কথা ফাইনাল হয়ে গেলে আর কোনো সাক্ষাৎকার নেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন কামাল। তিনি বলেন, “আমরা তাকে চাই। তাকে পাওয়ার ব্যাপারে আমি আশাবাদী। আশা করি দ্রুত সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারবো। তিনি দেশে পরিবার রেখে এসেছেন। তার পরিবারকে এরই মধ্যে আমরা আমন্ত্রণ জানিয়েছি। আশা করছি এখানে তাদের ভালো লাগবে। এক সপ্তাহের কম সময়ের মধ্যে আমরা ফলাফল আশা করছি।”

শুক্রবার রাতে বাংলাদেশে আসা পাইবাস শনিবার ঘুরে ফিরে দেখলেন মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম। স্টেডিয়াম ও জাতীয় ক্রিকেট একাডেমি দেখে মুগ্ধ পাকিস্তানের সাবেক এই কোচ।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট