Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

নাটোরে সড়ক দুর্ঘটনা

অলৌকিক ভাবে বেঁচে গেলো এক শিশু
নাটোর থেকে শেখ তোফাজ্জ্বল হোসাইন, ১৭ জানুয়ারি (বি ডি নিউজ/ বাংলার চোখ) নাটোরের বড়াইগ্রামে মাইক্রোবাসের ট্রাকের ধাক্কায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরনে শিল্পপতি ও এক সাবেক ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান তার মা, স্ত্রী, ভাই ও বোনসহ ৫জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় অলৌকিক ভাবে একই পরিবারের এক শিশু প্রায় অক্ষত রয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের লাতুরিয়ায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, বিকেল চারটার দিকে বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের লাতুরিয়ায় ঢাকাগামী একটি ট্রাক অপর একটি মাইক্রোবাসকে পাশ কাটিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় ট্রাকটি মাইক্রোবাসের পিছনের দিকে ধাক্কা দেয়। ফলে মাইক্রোবাসটি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার পাশের একটি গাছের সাথে ধাক্কা লাগে। উভয় মুখী ধাক্কায় সিএনজি চালিত বিলাস বহুল মাইক্রোবাসটির গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হলে মুহুতের মধ্যে মাইক্রোবাসে আগুন ধরে যায়।
এতে মাইক্রোবাসের পাঁচ আরোহী অগ্নিদগ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। নিহতরা হলেন কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের মাঝদিয়ার গ্রামের বাসিন্দা স্থানীয় মরিচা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শিল্পপতি হাসানুজ্জামান বাবু (৫৯), তার ভাই আসাদুজ্জামান সাবু (৫৭), উভয়ের মা লুৎফন নেছা ওরফে খাতেমুন নেছা (৮৪) ও বোন তহমিনা খাতুন বিউটি (৫৫) এবং চেয়ারম্যান বাবুর স্ত্রী শিখা (৫০)। (৯) অলৌকিক ভাবে প্রায় অক্ষত রয়েছে। তাকে স্থানীয় বনপাড়া বাইপাস মোড়ের একটি বেসরকারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বড়াইগ্রাম উপজেলায় কোন ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন না থাকায় পাশের গুরুদাসপুর উপজেলা থেকে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা এসে আহত ও নিহতদের উদ্ধার করে। দূর্ঘটনায় মাইক্রোবাসটি পুরোপুরি ভস্মিভূত হওয়াতে গাড়ীর নম্বর প্লেটটিও সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। নিহত সাবেক চেয়ারম্যান শিল্পপতি হাসানুজ্জামান বাবু চেয়ারম্যান নির্বাচন করার আগে সেনা বাহিনীর সেকেন্ড ল্যাফটেন্টেন হিসেবে কর্মরত ছিলো। সে একই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান হিসাব উদ্দিনের ছেলে।  এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।
হালকা অগ্নিদগ্ধ শিশু ফারজানা কবির তিথিলা জানায়, ঘটনার সময় তার বড় মা ভিতর থেকে তাকে জানালা ভেঙ্গে বের করার চেষ্টার সময় পথচারী এক মহিলা তাকে টেনে বের করে। সে জানানয় তার দুই নানা বাবু ও সাবু তাদের অসুস্থ্য মা লুৎফন নেছার চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যাচ্ছিল।
নাটোর জেলা প্রশাসক মোঃ মজিবর রহমান ও বড়াইগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী নাটোরের পুলিশ সুপার মোঃ কাইয়ুমুজ্জামান খান  বলেন, মর্মান্তিক এই দূর্ঘটনায় নিহতদের পরিচয় পাওয়া গেছে। ময়নাতদন্ত শেষে তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

নিউজ সোর্স বাংলার চোখ

 

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট