Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

ইউটিউবের নিজস্ব চ্যানেল পাইপলাইনে

নিউ ইয়র্ক, ৬ মে: বিশ্বজুড়ে ইউটিউবের জনপ্রিয়তা বাড়ছেই৷ প্রতিমাসে ৮০ কোটিরও বেশি মানুষ এসে ঢুঁ দেয় এখানে, মানুষ গড়ে প্রতিমাসে ইউটিউবে সময় কাটায় তিন বিলিয়ন ঘণ্টারও বেশি৷ বিপুল সংখ্যক এই দর্শকের জন্যই ইউটিউব এবার বাজারে আনতে যাচ্ছে ইন্টারনেট চ্যানেল৷

 

হয়তো পথে চলতে চোখে পড়ল মজার কোনো ঘটনা৷ আর দেখা মাত্রই সেটা ভিডিও করে নিলেন নিজের ফোনে৷ হয়তো দেশে বা বিদেশে খুব অসাধারণ সুন্দর কোনো জায়গায় বেড়াতে গেলেন৷ নিজের চোখে দেখা সেই সুন্দর জায়গাগুলো হয়তো অন্যদের দেখানোর জন্য ভিডিও করে আপনি ছেড়ে দিলেন ইউটিউবে৷

 

আপনার মত দুনিয়ার কোটি কোটি মানুষও তাই করছে৷ ভাল লাগার বা মজার বা কৌতুককর কিছু ভিডিও করে ছেড়ে দিচ্ছে ইউটিউবে৷ শুধু তাই নয়, ইউটিউবে নিজের চ্যানেলও চালু করেছে পৃথিবীর বহু মানুষ৷ যে চ্যানেলের বরাত দিয়ে দেশে দেশে পৌঁছে যাচ্ছে নতুন বার্তা৷

 

ইলেকট্রনিক চ্যানেল ও ভিডিও চ্যানেলে সম্প্রচারের এই যুগে ইউটিউব এবার নিজেই নিয়ে আসছে আনকোরা তিনটি নতুন চ্যানেল৷ গত বুধবার রাতে এই ঘোষণা দিয়েছে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ৷

 

এই চ্যানেলগুলোর মধ্যে একটি হবে নারীদের জন্য৷ ‘ডব্লিউআইজিএস’ নামের এই চ্যানেলের জন্যই বানানো হবে নাটক ও নতুন সব অনুষ্ঠান৷ এ চ্যানেলের নাটক ও ধারাবাহিক বানানোর জন্য ইতোমধ্যেই পাকা কথা হয়ে গেছে খ্যাতিমান পরিচালক রোদরিগো গার্সিয়া’র সঙ্গে৷ আর নাটকে অভিনয়ের জন্য চূড়ান্ত হয়ে গেছে জনপ্রিয় অভিনেত্রী ভার্জিনিয়া ম্যাডসেন, জুলিয়া স্টাইলস ও জেনিফার বিলস এর সাথে৷

 

আসন্ন অলিম্পিক খেলাকে কেন্দ্র করে আসছে ইউটিউবের আরেকটি চ্যানেল৷ যেটির নাম ‘টিমইউএসএ’৷

 

অ্যামেরিকার অলিম্পিক কমিটির সাথে মিলে যৌথভাবে চ্যানেলটি আনছে ইউটিউব৷ অতীত ও বর্তমানের অলিম্পিক খেলোয়াড়দের উপরে বিশেষ পরিবেশনা থাকবে চ্যানেলটিতে৷ সেই সঙ্গে থাকবে অলিম্পিকের ঐতিহাসিক গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তের ফুটেজ৷

 

‘দি পিকচার শো’ নামে তৃতীয় আরেকটি চ্যানেলও এ বছরই বাজারে আনবে ইউটিউব৷ ‘ট্রিবেকা ফিল্ম ফেস্টিভাল’ এর আয়োজক বিশ্বখ্যাত কোম্পানি ‘ট্রিবেকা এন্টারপ্রাইজ’ এর সাথে মিলে এই চ্যানেলটি করবে ইউটিউব৷

 

এখন আর শুধুই শখের ভিডিও নয়, ইউটিউব আপনাকে সরবরাহ করবে আনকোরা নতুন তথ্য৷ বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, এত সব কাণ্ড করার জন্য ২০০ মিলিয়ন ডলার বাজেট রেখেছে ইউটিউব৷

 

আপনি কি ভাবছেন, একেবারে বিনা লাভেই  ইউটিউব এতো কিছু করছে! মোটেও নয়৷ নিজের পাতা এবং নিজের চ্যানেলগুলোতে আরো বেশি করে বিজ্ঞাপন টানতে-ই ইউটিউবের এই আয়োজন৷ কারণ যত বেশি বিজ্ঞাপন, তত বেশি টাকা৷সূত্র: ডয়েচে ভেলে।

 

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট