Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

আজই চলে যাচ্ছেন ল

আজ ভোরেই চলে যাচ্ছেন বাংলাদেশের কোচ স্টুয়ার্ট ল। চুক্তি অনুযায়ী তার ৩০শে জুন যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বাংলাদেশ জাতীয় দলের সামনে কোন খেলা নেই তাই তার কোন কাজও নেই। যে কারণে ব্যক্তিগত কাজের তাগিদেই নির্ধারিত সময়ের আগেই চলে যাচ্ছেন ল। তবে যাওয়ার আগে তিনি শেষবারের মতো এসেছিলেন তার কর্মস্থল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে (বিসিবি)।  সেই সময় তিনি বলেন, ‘এখন তার কাছে পরিবারের উদ্দেশ্যটাই বড়। যদি কোন দিন আবারও বাংলাদেশে দ্বিতীয়বার সুযোগ হয় তাহলে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করবো।’ তবে যাওয়ার আগে তিনি নিজের বিদায় নিয়ে আনুষ্ঠানিকতা না করার অনুরোধ করায় অনেকটা নীরবেই চলে যাচ্ছেন ল। এ বিষয়ে বিসিবি’র মিডিয়া চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘আমরা চেয়েছিলাম ওকে অনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় জানাতে। কিন্তু ওর নিজের অনুরোধ ছিল এমন কোন আয়োজন যেন না করা হয়। তবে ওকে সম্মান জানতে বিসিবি’র পক্ষ থেকে ক্রেস্ট দেয়া হবে।’
গতকাল সকালই স্টুয়াট ল বিসিবিতে আসেন নিজের বিদায়ের আগে আনুষ্ঠানিকতা সারতে। এর পর তিনি কথা বলেন বিভিন্ন মিডিয়ার সঙ্গে। বাংলাদেশ নিয়ে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘যখন আমি বাংলাদেশের দায়িত্ব নিলাম, সেই সময় থেকে দলটিকে পর্যবেক্ষণ করতে শুরু করি। আমার তখন মনে হয়, এ দলে বেশ সম্ভাবনা ও প্রতিভা আছে। আমি নিজের পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করতে থাকি। যার ফল পাওয়া যায় এশিয়া কাপে এসে। বাংলাদেশের সম্ভাবনা উজ্জ্বল। ওরা বেশ ভাল করবে। র‌্যাংঙ্কিও বাড়বে।’ এছাড়া বাংলাদেশ দলের দুর্বলতা নিয়ে তিনি বলেন, ‘এ দলটির সবচেয়ে বেশি সমস্যা তাদের ফিটনেসে। যদি ফিটনেস নিয়ে কাজ করা যায়, তাহলে ওরা আরও দ্রুত উন্নতি করবে।’
দলের ক্রিকেটারদের নিয়ে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘যে দলে সাকিব তামিমের মতো তারকারা আছে, সেই দলের সম্ভবনা উজ্জ্বল। আর আমি মাশরাফির এভাবে ফেরায় মুগ্ধ। ও বাংলাদেশ দলের অনুপ্রেরণা।’
গত ১৬ই এপ্রিল তিনি হঠাৎ করেই পদত্যাগের ঘোষণা দেন। এর পর তার ৩০শে জুন যাওয়া কথা থাকলেও তিনি তার ব্যক্তিগত কাজে আজ ভোরেই ইংল্যান্ডের উদ্দেশে পাড়ি জমাবেন। সেখানে তিনি তার বাড়ি বিক্রি করে চলে যাবেন নিজ দেশ অস্ট্রেলিয়ায়। থাকবেন শুধু পরিবারের সঙ্গে ও অস্ট্রেলিয়ান একাডেমির সঙ্গে।
তিনি ২০১১ সালের জুলাইয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের কোচিংয়ের দায়িত্ব নিয়েছিলেন। সেই থেকে শুরু। দায়িত্ব নেয়ার পর তার কোচিংয়ে চারটি আন্তর্জাতিক সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ দল। তার মধ্যে এশিয়া কাপ ছিল তার সফলতম আসর। চার জাতির এই টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলে বাংলাদেশ দল। ভারত, শ্রীলঙ্কার মতো দলকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল বাংলাদেশ দল। তবে এক বছরেই তিনি তার পাঠ চুকিয়ে চলে যাচ্ছেন নিজ দেশ অস্ট্রেলিয়াতে। তবে তার আগে বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য রেখে যাচ্ছেন সফল্য ও ব্যর্থতার কিছু স্মৃতি।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট